লাউ শাকের যত গুণ

শনিবার, জানুয়ারি ২৩, ২০২১

স্বাস্থ্য ডেস্ক: লাউ সবার পরিচিত একটি উপাদেয় সবজি। লাউয়ের মতো তার শাখা অর্থাৎ এর শাকও বেশ জনপ্রিয় এবং সুস্বাদু। লাউ শাক বিভিন্ন ভাবে খাওয়া যায়, ভর্তা, ঝোল, মাছের সঙ্গে এমনকি ভাজি খাওয়ার প্রচলন রয়েছে। অত্যন্ত উপাদেয় এই শাকে রয়েছে ফলিক এসিড, আয়রন, পটাশিয়াম, ক্যালশিয়াম এবং ভিটামিন-সি। আবার সহজ লভ্য এই শাকে আছে প্রচুর পরিমাণে আঁশ। যা স্বাস্থ্য সুস্থ ও সবল রাখতে দারুনভাবে কার্যকর।

লাউ শাকের বেশ কিছু উপকারিতার মাঝে অন্যতম হলো:

৥ এই শাকে আয়রন থাকার কারণে রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ বাড়াতে বেশ কার্যকর। একই সাথে লোহিত রক্ত কনিকার সংখ্যা বাড়িয়ে রক্ত তৈরিতেও সাহায্য করে এই শাক।

৥ লাউ শাক কোলেস্টেরল ও ফ্যাট মুক্ত। আবার ক্যালরি কম থাকায় ওজন কমানোর জন্য লাউ শাক হলো একটি আদর্শ খাবার। এই শাকে থাকা পটাশিয়াম হৃদস্পন্দন ও রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখে। এছাড়া শাকটিতে প্রচুর আঁশ থাকার কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়। এছাড়া পাইলস প্রতিরোধেও অনেক ক্ষেত্রে সহায়ক।

৥ লাউ শাকে রয়েছে উচ্চ মাত্রার ভিটামিন-সি। যা বিভিন্ন ধরনের সংক্রমণ ও ঠাণ্ডা প্রতিরোধে সাহায্য করে। বিটা-ক্যারোটিন, লুটেইন এবং জিয়েজ্যান্থিনে পরিপূর্ণ এই শাক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় (বিটা-ক্যারোটিন) এবং লুটেইন ও জিয়েজ্যান্থিন চোখের নানাবিধ রোগ প্রতিরোধ করে থাকে।

৥ লাউ শাক দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। তাই লাউ শাক খেলে মস্তিষ্ক থাকবে ঠাণ্ডা এবং ঘুমও হবে গভীর। পাশাপাশি এই শাক খেলে ক্যালসিয়ামের অভাবজনিত রোগের ঝুঁকি অনেকাংশে কমে যায়।

৥ লাউ শাকে থাকা ক্যালসিয়াম এবং ম্যাগনেশিয়াম হাড় শক্ত ও মজবুত করে।