দাগনভূঁঞায় ভোটকেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণ, আনসার সদস্যসহ আহত ৪

শনিবার, জানুয়ারি ১৬, ২০২১

ফেনী : ফেনীর দাগনভূঞা পৌরসভা নির্বাচনে গনিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পর দুটি কককেট বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় আনসার সদস্যসহ ৪ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। পরে ডিবি পুলিশ, র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আজ শনিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

টেবিল ল্যাম্প প্রতিকের প্রার্থী কামরুল ইসলাম ক্লাইব বলেন, তাকে অবরুদ্ধ করে রেখেছিলো উট পাখি প্রতিকের কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকরা। জিয়াউল হক হক নামের আরেক প্রার্থী জানান এ কেন্দ্রের আশপাশে অস্ত্রের মহড়া চলছে।

সুরুজ মিয়া মিয়া নামের এক ভোটার জানান, তাকে কেন্দ্রে আসার পথে প্রতিপক্ষরে লোকেরা মেরেছে, তার বাবা মাকেও মেরেছে।

কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন ককটেল বিস্ফোরণের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

প্রিজাইডিং অফিসার গোফরান উদ্দিন বলেন, কিছুটা বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরী হলেও ভোটাররা নির্বিঘ্নে ভোট প্রদান করছেন।

প্রিজাইডিং অফিসার গোরফান উদ্দিন জানান, সকালে দাগনভূঞা পৌর নির্বাচনে গনিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে দুটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়েছে। দুর্বৃত্তরা ককটেল বিস্ফোরণ করে দ্রুত সরে যায়। এতে ভোটাররা আতঙ্কিত হয়ে পরেন। ভয় পেয়ে অনেক ভোটার কেন্দ্র থেকে চলে গেছেন। বর্তমানে ভোটকেন্দ্রে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিতি আছেন।

এদিকে ইমিএম মেশিন ধীরে চলায় ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। ভোট দিতে এসে হয়রানীর অভিযোগ করেন ভোটারেরা।