শেখ হাসিনা যদি প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন তারেক রহমান কেন নয়: দুদু

বুধবার, জানুয়ারি ১৩, ২০২১

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট : বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও কৃষকদলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন,’শেখ হাসিনা যদি প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন তারেক রহমান না হওয়ার কি আছে?

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেছেন,’
দিন তারিখ দিব না,তবে এ বছরের মধ্যে আপনি প্রধানমন্ত্রী বিছানাপত্র গোছাতে পারেন।এই দেশে বাংলাদেশিরা থাকবে এই দেশে মুক্তিযোদ্ধারা থাকবে এই দেশে গণতন্ত্র ও স্বাধীনতা রক্ষার সৈনিকেরা থাকবে। এই দেশে অন্য কোন দেশের কোন দালাল টালালরা থাকবে না।

বুধবার(১৩ ডিসেম্বর)জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা মহাগর বিএনপির উদ্দ্যোগে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে এক বিশাল মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, স্লোগান দেন আর না দেন আন্দোলন করেন আর না করেন শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকতে পারবেনা,পারবেনা, পারবেনা।চারিদিকে নানা কথা-বার্তা ফুসফাস আমরা শুনতে পাচ্ছি আপনি কি শুনতে পান না? অবস্থা ভালো না।প্রধানমন্ত্রী আপনাকে বলি বিএনপি আপনাকে উৎখাত করতে চায় না। কিন্তু এদেশের মানুষ আপনাকে আর চায়না।

বিএনপির এই শীর্ষনেতা বলেন,
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এ দেশে আসবেন।তিনি আসবেন এদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার জন্য এদেশের স্বাধীনতা রক্ষার জন্য আসবেন, তিনি আসবেন এদেশের কৃষকের জন্য শ্রমিকের জন্য, আসবেন এদেশের মেহনতী মানুষের জন্য। তাকে ঠেকাবেন কিভাবে? তিনি ইতিমধ্যে ব্যারিস্টারি পাস করেছেন। আইনের উপরে তিনি বিশেষজ্ঞ পর্যায়ে রয়েছেন।এইসব মামলা টামলা করে লাভ নেই।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে দুদু আরও বলেন,আপনাদেরকে পার্টি যখন ডাক দিবে আমরা যে যেখানে থাকি না কেন যার যা কিছু আছে তাই নিয়ে আমরা রাস্তায় নেমে আসবে, কার জন্য আমরা ঝাঁপিয়ে পড়বো।

বিএনপর যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল এর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ভাইস চেয়ারম্যান ডা: এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান,আব্দুস সালাম,যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম,স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফৎ আলী সপু,সহ-প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামিমুর রহমান শামিম,যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দীন টুকু,সিনিয়র সহ-সভাপতি মোর্তাজুল করিম বাদরু,স্বেচ্ছাসেবকদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান,সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল,সিনিয়র সহ-সভাপতি গোলাম সারোয়ার,কৃষকদলের সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন,ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন,সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী রওনুকুল ইসলাম শ্রাবণ,সাধারণ সস্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ বক্তব্য দেন।

এছাড়াও মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন,বিএনপির সহ-যুব বিষয়ক সম্পাদক মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, মৎস্যজীবি দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি ডা: দেওয়ান সালাউদ্দীন বাবু, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক, কৃষকদলের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মাইনুল ইসলাম,কৃষিবিদ মেহেদী হাসান পলাশ,ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন, সাংগঠনিক সাইফ মাহমুদ জয়েল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, যুগ্ম-আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।