আপত্তিকর অবস্থায় ধরা মেম্বর পদপ্রার্থী, অতঃপর…

শনিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০২০

সাতক্ষীরা: গৃহবধূর সাথে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার সময় জনগণের কাছে হাতে-নাতে ধরা পড়ে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন ঢালীর শ্যালক ও আসন্ন ইউপি নির্বাচনে মেম্বরপ্রার্থী কওসার আলী(৩৫)। পরে ওই গৃহবধূ ও কওসার আলীকে গণপিটুনি দিয়ে আটকে রাখে স্থানীয় ক্ষুব্ধ জনতা।

শুক্রবার (১১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সাতক্ষীরা সদরের শিবপুর ইউনিয়নের শিয়ালডাঙ্গা গ্রামের হাসিনা বেগমের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মেম্বর প্রার্থী কওসার আলী আগরদাড়ী ইউনিয়নের শিয়ালডাঙ্গা(বাকপাড়া) গ্রামের সুবহান গাজীর ছেলে এবং ওই গৃহবধু একই এলাকার বাসিন্দা।

শিবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের এক নেতাসহ স্থানীয়রা বলেন, স্বামী সালাম অন্যত্র থাকার সুযোগে দীর্ঘদিন ধরে হাসিনা বেগম তার বাড়িতে বিভিন্ন ব্যক্তিদের আশ্রয় দিয়ে দেহ ব্যবসা করাচ্ছিলেন। এ নিয়ে দীর্ঘদিন এলাকাবাসীর নজরদারীতে ছিল হাসিনা বেগম ও তার বসতবাড়ী । একপর্যায়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় কওসার আলীসহ ওই গৃহবধূ হাসিনা বেগমের বসতবাড়িতে অবস্থান করে অনৈতিক কর্মকাণ্ড শুরু করে।

স্থানীয় লোকজন জানতে পেরে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে অনৈতিক কাজে লিপ্তাবস্থায় তাদেরকে ধরে ফেলে। এসময় স্থানীয়রা তাদেরকে গণপিটুনি দিয়ে আটক করে রাখে। পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হলে কৃষকলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন ঢালী তার শালা কাওসার আলীকে স্থানীয় জনতার হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়ে চলে যান।