কাউকে করোনার টিকা নিতে বাধ্য করা হবে না: বাইডেন

শনিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনা প্রতিরোধে কোনো টিকা চলে আসলে সেটি নিতে কোনো মার্কিন নাগরিককে বাধ্য করা হবে না বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, নিজের অঙ্গরাজ্য ডেলাওয়ারের উইলমিংটনে এক বক্তব্যে এমনটা বলেন তিনি।

তার ভাষ্য, করোনার টিকা বাধ্যতামূলকভাবে গ্রহণকে তিনি জরুরি মনে করছেন না।

বাইডেন বলেন, ‘মানুষ যাতে সঠিকটাই করে, তাদের সেদিকে উৎসাহিত করতে একজন প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমি সবকিছুই করব।’

পিউ রিসার্চ সেন্টার জানায়, ৬০ শতাংশ মার্কিন নাগরিক করোনার টিকা নিতে প্রস্তুত, সেপ্টেম্বরে যেটি ছিল ৫১ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে বাইডেন জানান, করোনার টিকার সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগ নিরসনে তিনি প্রকাশ্যে টিকে গ্রহণ করে খুশি হবে।

একইভাবে তিন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ, বিল ক্লিনটন এবং বারাক ওবামাও প্রকাশ্যে টিকা নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

শুক্রবার মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স আটলান্টায় মার্কিন রোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা (সিডিসি) পরিদর্শনকালে জানান, দেড় সপ্তাহের মধ্যে একটি টিকার অনুমোদন দিতে যাচ্ছে ফেডারেল সরকার।

যুক্তরাজ্য প্রথম দেশ হিসেবে মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা পাইজারের বানানো টিকার অনুমোদন দিয়ে দিয়েছে। জার্মান জৈবপ্রযুক্তি সংস্থা বায়ো-এনটেকের সঙ্গে যৌথভাবে এ টিকা আবিষ্কার করে পাইজার। এ ছাড়া আরেক মার্কিন সংস্থা মডার্নার টিকাও অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।

এদিকে সিডিসি প্রথমবারের মতো নাগরিকদের যে কোনো অভ্যন্তরীণ জায়গায় ‘সর্বজনীনভাবে মাস্ক ব্যবহারের’ অনুরোধ জানায়, যদি না তারা নিজের ঘরে অবস্থান করে।

যুক্তরাষ্ট্র এখন উচ্চমাত্রায় সংক্রমণের জায়গায় প্রবেশ করেছে বলে সিডিসি জানায়। শুক্রবার দেশটিতে একদিনে আড়াই হাজার মৃত্যুর রেকর্ড হয়, আক্রান্ত হয় প্রায় দুই লাখ ২৫ হাজার মানুষ।

এখন পর্যন্ত দেশটিতে দেড় কোটির কাছাকাছি মানুষ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছে। মোট মৃতের সংখ্যা ২ লাখ ৮৫ হাজার ৫৫০ জন।