রাজনীতিতে ধর্মের ব্যবহার নিষিদ্ধের দাবি সিপিবির

বুধবার, ডিসেম্বর ২, ২০২০

ঢাকা: মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে রাজনীতিতে ধর্মের ব্যবহার নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। বুধবার ( ২ ডিসেম্বর) সংগঠনটির সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড মোহাম্মদ শাহ আলমের যৌথ বিবৃতিতে এ দাবি করেন সংগঠনের নেতারা।

বিবৃতিতে সংগঠনের নেতারা বলেন, ভাস্কর্যবিরোধীতার আড়ালে যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে নৎস্যাত করতে চায়, তাদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে এবং রাজনীতিতে ধর্মের ব্যবহার নিষিদ্ধ করতে হবে।

জনগণকে সব ধরণের প্রতিক্রিয়াশীল ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে তারা বলেন, সাম্প্রদায়িক ধর্মান্ধ শক্তিকে প্রতিরোধ, পরাজিত করার লড়াই এবং ভাত-ভোট ও গণতন্ত্রের লড়াই জোরদার করতে দেশপ্রেমিক, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে নামতে হবে। ডিসেম্বর মাস, বাঙালির বিজয়ের মাস। ২০২০ সাল মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা ও বিজয়ের ৫০ বছর পূর্তির বছর। ৩০ লক্ষ মানুষের আত্মাহুতি ও দুই লক্ষ মা-বোনের আত্মত্যাগের মধ্য দিয়ে আমাদের দেশ হানাদার মুক্ত হয়। ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর আমরা বিজয় অর্জন করি।

তারা আরও বলেন, সাম্প্রদায়িক দ্বি-জাতি তত্ত্বকে পরাজিত করার মধ্য দিয়ে গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, বাঙালি জাতীয়তাবাদ, ধর্মনিরপেক্ষতা সংবিধানের মূলনীতি হিসেবে ঘোষিত হয়। কিন্তু গণমানুষের সেই বিজয় ছিনতাই হয়ে যায়। ১৯৭৫ এর নির্মম রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের পর। পরাজিত পাকিস্তানী সাম্প্রদায়িক ভাবাদর্শ, অর্থনীতি ও রাজনৈতিক ধারা পুনরায় পুনর্বাসিত হয়।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সমালোচনা করেও সিপিবির নেতারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ একই ধারায় দেশ পরিচালনা করছে। দেশে ধন বৈষম্য, শ্রেণি বৈষম্য পর্বত প্রমাণ। ২২ পরিবারের জায়গায় হাজার হাজার কোটিপতির জন্ম হয়েছে। খুন, দুর্নীতি, মাদক, ধর্ষণ ও সন্ত্রাস মহামারি রূপ নিয়েছে। বেকার বিশেষ করে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা সীমাহীন। মানুষের স্বাস্থ্য, চিকিৎসা ও খাদ্যের নিরাপত্তা নাই। ভোট ও গণতন্ত্র নির্বাসনে। সাম্প্রদায়িক, মুক্তিযুদ্ধবিরোধী ধর্মান্ধ শক্তির হুমকি ও আস্ফালন অব্যাহত আছে। তাদের সাথে সরকারের আপোষ ও তোষণ নীতির কারণে এদের সাহস ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। সরকারের দ্বিমুখী আচরণ মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে হুমকিগ্রস্ত করেছে।