মৃত্যু বাড়ছে দ্রুত, পরিস্থিতি আরো খারাপ হওয়ার শঙ্কা

রবিবার, নভেম্বর ২৯, ২০২০

ঢাকা : শীতে করোনা সংক্রমণ বাড়বে। শঙ্কা ছিল আগেই। কিন্তু শীত পুরোমাত্রায় আসার আগেই পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। বাড়ছে মৃত্যু ও সংক্রমণের হার। অবস্থার আরো অবনতির আশঙ্কা করছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া হিসাব অনুযায়ী সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ৩৬ জন। দেশে এ পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ৬ হাজার ৫৮০ জন। ২২ থেকে ২৮শে নভেম্বর এক সপ্তাহে মারা গেছেন ২৩০ জন। এটি সংক্রমণ শুরুর ৪৮তম সপ্তাহ।

এর আগের সপ্তাহে অর্থাৎ ১৫ থেকে ২১ নভেম্বর মৃত্যু হয় ১৭৭ জনের। তার আগের ৪৬তম সপ্তাহে (৮ থেকে ১৪ নভেম্বর) মৃত্যু হয়েছিল ১২৪ জনের। ৪৬তম সপ্তাহের তুলনায় ৪৮তম সপ্তাহে মৃত্যু বেড়েছে ১০৬ জনের, ৮৫ শতাংশের বেশি। আর বিগত সপ্তাহে আগের সপ্তাহের তুলনায় মৃত্যু বেড়েছে ৫৩ জনের, প্রায় ৩০ শতাংশ বেশি। এই সময়ে করোনার সংক্রমণের সংখ্যাও বেড়েছে।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনা সংক্রমণ রোধে আরো সতর্কতা প্রয়োজন। বিশেষ করে বয়স্কদের মধ্যে সতর্কতা বেশি বাড়াতে হবে।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. বে-নজীর আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, সংক্রমণের শুরুতে বয়স্করা একটু সাবধান ছিলেন। লকডাউন তুলে নেয়ার পর তারা আগের মতো আর নিয়ম মানছেন না। লকডাউনের সময় বয়স্করা বলতে গেলে বাসার বাইরে বের হতেন না। মে মাসে লকডাউন তুলে দেওয়ার পর তারা এখন বাইরে আসছেন। এছাড়া পরিবারের সদস্যরা নিয়মিত বাড়ির বাইরে বেরোচ্ছেন, তাদের মাধ্যমে বয়স্করা সংক্রমিত হচ্ছেন।

তিনি বলেন, শীতকালে হাঁপানি, ব্রংকাইটিসসহ শ্বাসনালীর নানা ধরনের সমস্যা হয়। সঙ্গে যদি করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয় তাহলে বয়স্কদের অক্সিজেনের লেভেল আরও কমে যায়। এক্ষেত্রে আমাদের দেশে আইসিইউর যে চাপ রয়েছে তাতে সঠিক চিকিৎসা ব্যাহত হয়। যে কারণে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে যায়।