মৎস্য সেক্টরই পারে দেশেকে উন্নয়নের শিখরে পৌঁছে দিতে : খাদ্যমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২০

ঢাকা : খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেচেন, মিঠা পানির মৎস্য উৎপাদনে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের বুকে স্থান করে নিয়েছে। আমরা বিশ্বের মৎস্য উৎপাদনশীল দেশ সমূহের মধ্যে ৩য় স্থানে অবস্থান করছি। তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শিতার কারণেরই মৎস্যই বিশর বুকে আমাদের দেশের পরিচয় ঘটিয়ে দিয়েছে। তাই দেশের মৎস্য সেক্টরই পারে দেশকে উন্নয়নের উন্নত শিখরে পৌঁছাতে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মন্ত্রী তার নির্বাচনী এলাকা নওগাঁর সাপাহার উপজেলার ঐতিহ্যবাহী জবই বিল মৎস্যচাষ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্যোগে জবই বিল থেকে মৎস্য আহরণ উদ্বোধন উপলক্ষে জবই সেতুর উত্তরপাশে আয়োজিত মৎস্যজীবীদের সাথে বিশেষ মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দানকালে কথাগুলো বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘জবই বিলটিতে একটি আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার পরিকল্পলা আমাদের রয়েছে। যা বাস্তবায়ন করা গেলে এঅঞ্চলে একটি সুস্থ ধারার বিনোদন কেন্দ্র প্রতিষ্ঠিত হবে। যাতে করে বহু মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হতে পারে। অপরদিকে সরকারের অর্থনৈতিক অপার সম্ভবনার দ্বার উম্মোচিত হবে।’

তিনি বলেন, শীতকালে জবই বিলে ১৭ প্রজাতির পাখি বিভিন্ন দেশ থেকে আসে। এসব পাখিকে কেউ শিকার করে বিরক্ত করতে পারবে না। পাতাড়ী থেকে জবই পযন্ত রাস্তা এবং জবই বিলে অবস্থিত সেতুটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল জলিলের নামানুসারে রাখা হবে বলেও তিনি জানান।

নওগাঁ জেলা প্রশাসক মো: হারুন-অর-রশিদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মাৎ নাজমানারা খানুম, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের মহা পরিচালক সারোয়ার মাহমুদ, নওগাঁ পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম, সাপাহার উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শাহজাহান হোসেন মন্ডল প্রমুখ।

প্রধান অতিথি নৌকায় চড়ে জাল টেনে বিলের মৎস্য আহরণের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। জবই বিল মৎস্যচাষ উন্নয়ন প্রকল্পের সকল সদস্য ও উপজেলার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ বিল পাড়ের অসংখ্য লোকজন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।