ইসরায়েল-আমিরাতের মধ্যে সরাসরি বিমান চলাচল শুরু

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২০

নিউজ ডেস্ক : সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ইসরায়েলের মধ্যে সরাসরি বিমান চলাচল শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুবাই থেকে তেল আবিবের মধ্যে সরাসরি এ ফ্লাইট চালু করেছে সাশ্রয়ী এয়ারলাইন ফ্লাইদুবাই।

গত সেপ্টেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় সম্পর্ক স্বাভাবিককরণে তথাকথিত ঐতিহাসিক চুক্তিতে সই করে ইসরায়েল ও আমিরাত। একই ধরনের চুক্তি হয় বাহরাইনের সঙ্গেও। ফিলিস্তিনিরা এ চুক্তিকে তাদের পিঠে ছুরিকাঘাত বলে উল্লেখ করলেও একপ্রকার চুপ থেকে বিষয়টিতে সমর্থন জানায় সৌদি আরব।

শিগগিরই আরব বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশ ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নের পথে হাঁটবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। বৃহস্পতিবার চার ঘণ্টার পথ পাড়ি দিয়ে ফ্লাইদুবাইয়ের উদ্বোধনী ফ্লাইটটি তেল আবিব পৌঁছালে সেটিকে বরণ করতে বিমানবন্দরে উপস্থিত থাকবেন তিনি।

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র অফির জেন্ডেলম্যান এক টুইটবার্তার বলেছেন, ‘ফ্লাইদুবাইয়ের ফ্লাইট বেন-গুরিয়ন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে সেটির অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটাই শান্তির ফল, প্রিয় আমিরাতি বন্ধুরা। ইসরায়েলে স্বাগতম!’ করোনাভাইরাস মহামারির আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে সম্পর্কোন্নয়ন চুক্তি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে বিশ্বাস ইসরায়েল ও আমিরাত কর্তৃপক্ষের। এবারের শীত মৌসুমে দুবাইয়ে ইসরায়েলি পর্যটকের ঢল নামবে বলে আশা করছে তারা।

চলতি মাসের শুরুর দিকে আমিরাত-ইসরায়েলের মধ্যে ফ্লাইট চালুর ঘোষণা দেয়ার সময় ফ্লাইদুবাইয়ের প্রধান নির্বাহী গাইথ আল-গাইথ বলেছিলেন, ‘নির্ধারিত ফ্লাইটগুলো শুরু হলে তা অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে এবং বিনিয়োগের আরও সুযোগ তৈরি করবে।’

দুবাইভিত্তিক বিমানটি দৈনিক দু’বার তেল আবিব রুটে চলাচল করবে। ইসরায়েলি এয়ারলাইন এল আল এবং ইসরেয়ার উভয়ই জানিয়েছে, তারা আগামী মাস থেকেই দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু করতে পারে।

এছাড়া, আবু ধাবিকেন্দ্রিক ইতিহাদ এয়ারওয়েজ ঘোষণা দিয়েছে, তারা ২০২১ সালের মার্চে তেল আবিবগামী ফ্লাইট শুরু করবে। সূত্র: আল জাজিরা