বিপরীত স্বভাবের মানুষের প্রেমে পড়েছেন, সম্পর্ক টিকিয়ে রাখবেন যেভাবে

শুক্রবার, অক্টোবর ৩০, ২০২০

লাইফস্টাইল ডেস্ক : প্রেম মানেনা কোনো বাধা। রূপ, গুণ বিচার করেও প্রেমে পড়া যায় না। কথায় আছে, সব সময় নাকি ভুল মানুষের প্রেমে পড়ে মানুষ। তবে অনেক সময় সেই প্রেমই কিন্তু প্রণয়ে পরিণতি পায়।

ভালোভাগা থেকে যখন ভালোবেসে ফেলেছেন। তখনই বুঝতে পারলেন ঠিক মানুষটির প্রেমে পড়েন নি। স্বভাবে পুরোই আপনার উল্টো। গবেষণা বলছে, বিপরীত স্বভাবের মানুষের প্রেমেই মানুষ বেশি পরে। এমন উদাহরণ খুঁজে পেতে খুব বেশি কষ্ট করতেও হবে না। আর তা যদি হয়, তাহলে সম্পর্কের ক্ষেত্রে কিছু বিষয় মেনে চলতেই হবে। এতে করে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা সহজ হবে-

বিশ্বাস রাখা
যে কোনো সম্পর্কের ক্ষেত্রেই এই বাক্যটি গুরুত্বপূর্ণ। আর বিপরীত মেরুর দু’টি মানুষের ক্ষেত্রে আরও বেশি প্রযোজ্য। একটু বিশ্বাস করে সঙ্গীকে ছাড়তে শিখুন না! আখেরে লাভ আপনারই হবে। আর সব সম্পর্কের প্রথম মন্ত্রই হলো বিশ্বাস। অন্ধ বিশ্বাস হলে এক্ষেত্রে আরো ভালো।

নিজের মতো থাকতে দিন
সম্পর্কে একটু দূরত্ব রাখুন। আর তাতে দুজনের প্রতি আকর্ষণ বাড়বে আরো বেশি। খুব কাছাকাছি চলে এলে দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে যাবে। আর তাতেই সম্পর্ক তিক্ত হতে শুরু করে। উল্টোদিকের মানুষটাকে একটু নিজের মতো থাকতে দেয়া উচিত। এতে পারস্পরিক সম্মানও বজায় থাকে।

আবেগকে সময় দিন
রাগ আর অভিমান সম্পর্কের সবচেয়ে বড় শত্রু। সঙ্গীর কোনো কাজে আপনার রাগ বা অভিমান হয়ে থাকলে সঙ্গে সঙ্গে রিঅ্যাক্ট করে ফেলবেন না। একটু আলাদা জায়গায় চলে যান। নিজের আবেগকে প্রশমিত হতে দিন। তাহলেই আপনি যুক্তি দিয়ে বিচার করতে সক্ষম হবেন।

পাশে থাকুন
হতেই পারে, আপনি যেটা করতে পছন্দ করেন না, তা আপনার সঙ্গীর পছন্দ। মনে করুন, আপনার খেলা দেখতে একেবারেই ভালো লাগে না। কিন্তু সঙ্গী আবার খেলা দেখতে খুবই ভালোবাসে। তাহলে ইচ্ছে না থাকলেও তাকে সঙ্গ দিন। একান্ত দেখতে ইচ্ছে না করলে সেখানে বসে নিজের ইচ্ছেমতো অন্য কাজে মন দিতে পারেন। কিন্তু পাশাপাশি তো থাকা হবে!

মিল খুঁজুন
বিপরীত মেরুর মানুষদেরও কিছু না কিছু তো মিল থাকে। সেটা খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন। একান্ত না থাকলে তৈরি করুন। প্রয়োজনে কোনো আপনার কোনো একটি পছন্দ তার পছন্দের সঙ্গে মিলিয়ে নিন। আপনার এই ছোট্ট ছোট্ট ত্যাগ সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে সহায়তা করবে। এতে সম্পর্ক আরও পোক্ত হবে।

নতুনত্বে ভয় পাবেন না
জীবন পরিবর্তনশীল। পরিবর্তন যদি ভালোর জন্য হয়, আর ভালোবাসার জন্য হয় তাকে আপন করে নিতে তো কোনো সমস্যা নেই! নতুনত্বকে ভয় পাবেন না। বরং তাকে মুক্ত মনে আলিঙ্গন করুন।