হঠাৎ বাড়ছে ডেঙ্গুর প্রকোপ, ৭ দিনেই হাসপাতালে অর্ধশতাধিক রোগী

বুধবার, অক্টোবর ২৮, ২০২০

ঢাকা : রাজধানীতে মৌসুম পেরিয়ে হঠাৎ বাড়তে শুরু করেছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা। এক সপ্তাহেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন অর্ধশতাধিক রোগী। এদিকে জোরেশোরে এডিস নিধন চলছে জানিয়ে সিটি করপোরেশনের দাবি, অত্যাধুনিক ট্যাবলেটের ব্যবহারে অনেকটাই কমবে মশার উৎপাত। ডেঙ্গুর বিষয়ে হেলাফেলা প্রাণঘাতী হতে পারে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

সাধারণত জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে বেশি থাকে ডেঙ্গুর প্রকোপ। কিন্তু চলতি বছর অক্টোবরের শেষে এসে হঠাৎ করেই আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য বলছে, গেল এক সপ্তাহে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৫২ জন ডেঙ্গু রোগী। তাদের মধ্যে রাজধানীর বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ৪৬ জন এবং ঢাকার বাইরে ছয়জন ভর্তি হয়েছেন। এ নিয়ে চলতি মাসেই হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২১ জনে।

সিটি করপোরেশন বলছে , করোনার মাঝেও পুরোদমে চলছে মশক নিধন কার্যক্রম। এডিসের লার্ভা ধ্বংসে যোগ হয়েছে অত্যাধুনিক ওষুধের ব্যবহার।

ডিএনসিসি উপ প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা লেফট্যানেন্ট কর্নেল মো সারওয়ার বলেন, নতুন একটা ফোর্থ জেনারেশন লার্ভি ট্যাবলেট ফর্মে আনা হয়েছে।

রাতে-দিনে মশারি ব্যবহারের পরামর্শ চিকিৎসকদের।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল মেডিসিন বিভাগ সহকারী অধ্যাপক ডা. মোস্তফা কামাল বলেন, দিনে বা রাতে মশারি টানিয়ে নিতে হবে।

করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষারও তাগিদ বিশেষজ্ঞদের।