কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে দুই বোনের আত্মহত্যা!

শুক্রবার, অক্টোবর ২৩, ২০২০

কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামে চাচাত দুই বোনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার সন্ধ্যার পর তারা আত্মহত্যা করে। মৃত মুক্তা (১৬) ও রুমা (২৫) সম্পর্কে চাচাত বোন। মুক্তা মোয়াজ্জেমের মেয়ে ও রুমা মুনতাজের মেয়ে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, কিছুদিন আগে মুক্তার আপন মামাতো বোন অপহরণ হয়। ওই অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার সহযোগী হিসেবে মুক্তা ও তার স্বামীকে আসামি করা হয়। মামলা হওয়ার কারণে মুক্তা প্রায় দুই মাস পার্শ্ববর্তী উপজেলার মিরপুরে দুলাভাই খাদিমুল ইসলামের বাড়িতে আত্মগোপনে থাকে। পরে মুক্তা আদালত থেকে জামিন নিয়ে নিজ বাড়িতে ফিরে আসে।

আজ শুক্রবার সকালে মুক্তার চাচাতো বোন রুমা স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। বেড়াতে এসে মুক্তার পরিবারের লোকজনের সাথে দফায় দফায় কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে সন্ধ্যায় মুক্তা গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। মুক্তা আত্মহত্যা করার আধাঘণ্টা পরে চাচাতো বোন রুমা গলায় রশি নিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শাহাদৎ হোসেন জানান, মুক্তা ও রুমার মরদেহ উদ্ধার করেছে দৌলতপুর থানা পুলিশ। ময়নাতদন্ত করতে লাশ কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।