‘জাতীয় পার্টির প্রার্থীদের রেজাল্ট সীট পরিবর্তন করে আ’ লীগ প্রার্থীদের বিজয়ী করেছে’

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২২, ২০২০

রংপুর : রংপুর সদর উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেছেন, দুটি ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির প্রার্থীদের রেজাল্ট সীট পরিবর্তন করে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

এটা খুবই দুঃখজনক আমরা আইনগতভাবে এর প্রতিকার চাইব বলে জানান তিনি। বুধবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকা থেকে বিমান যোগে রংপুরে জাপার প্রয়াত চেয়ারম্যান এরশাদের কবর জেয়ারত শেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষপত্র বিশেষ করে পেঁয়াজ আলুসহ সব্জির বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। এখন এটা অন্য একটি পক্ষের হাতে চলে গেছে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে ইচ্ছে মতো জিনিষ পত্রের দাম বাড়াচ্ছে আর কমাচ্ছে এবং মুনাফা করে তাদের পকেট ভারি করছে। এর মাধ্যমে জনগণকে জিম্মি করে ফেলা হয়েছে। সরকারের উচিত জিনিষ পত্রের দাম মানুষের ক্রয় ক্ষমতায় নিয়ে আসা।

জিএম কাদের তিনি বলেন, দেশের আইনশৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে, ধর্ষণ বৃদ্ধি পেয়েছে। বিষয়টি আমরা প্রতিবাদ করেছি। আমরা বলেছি সরকারকে কঠোর হাতে এটা দমন করা এ জন্য আইনকে কঠোর করা দ্রুত বিচার করে অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করা হলে ধর্ষণের মতো জঘন্য অপরাধ কমবে বলে আমরা মনে করি।

এর আগে, ঢাকা থেকে বিমান যোগে সৈয়দপুর বিমান বন্দরে অবতরণ করে মোটর শোভাযাত্রা সহকারে নগরীর দর্শনা এলাকায় প্রয়াত জাপা চেয়ারম্যান এরশাদের পল্লী নিবাস বাসভবনে এসে পৌঁছালে দলের নেতা কর্মীরা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

এরপরেই তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে এরশাদের কবর জেয়ারত ও ফাতেহা পাঠ করেন। এ সময় এরশাদের ছেলে রংপুর সদর ৩ আসনের সাংসদ সাদ এরশাদ রংপুর সিটি মেয়র ও মহানগর জাপা সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসিরসহ জাপার জেলা ও মহানগর শাখার নেতৃবৃন্দসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা তার সাথে ছিলেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, জিএম কাদের ৫ দিনের সফরে রংপুরে এসেছেন। এর মধ্যে দুদিন রংপুরে অবস্থান করবেন এবং তিনদিন তার নির্বাচনী এলাকা লালমনিরহাটে অবস্থান করে পুজা মন্ডপ পরিদর্শনসহ দলীয় নেতা কর্মীদের সাথে মতবিনিময় করবেন।