ইতালি সঙ্গে ড্র করল নেদারল্যান্ডস

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৫, ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক : রবের্তো মানচিনির কোচিংয়ে দারুণ ছন্দে এগিয়ে চলা ইতালির আক্রমণভাগ আলো ছড়ালো ম্যাচজুড়ে। পাল্টা আক্রমণে খুব বেশি পিছিয়ে ছিল না নেদারল্যান্ডসও। ব্যস্ত সময় কাটল দুদলের রক্ষণে। জমজমাট লড়াইটা শেষ পর্যন্ত অবশ্য অমীমাংসিতই রয়ে গেছে।

ইতালির বের্গামোয় বুধবার রাতে উয়েফা নেশন্স লিগে ‘এ’ লিগের ১ নম্বর গ্রুপের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে।

ম্যাচে দারুণ নৈপুণ্যে ম্যাচের ১৬ মিনিটে দলকে এগিয়ে নেন পেল্লেগ্রিনি। মাঝমাঠ থেকে নিকোলো বারেল্লার কোনাকুনি থ্রু বল ধরে নিখুঁত শটে ঠিকানা খুঁজে নেন রোমার এই মিডফিল্ডার। মাঝমাঠ থেকে অনেকটা একইরকমভাবে পরের ১০ মিনিটে আরও কয়েকবার ভীতি ছড়ায় ইতালি। তবে ব্যবধান বাড়েনি। ২৩তম মিনিটে চিরো ইম্মোবিলের কোনাকুনি শট রুখে দেন গোলরক্ষক ইয়াসপের সিলেসেন।

দুই মিনিট পর ম্যাচে প্রথম সুযোগ পেয়েই সমতায় ফেরে সফরকারীরা। ছয় গজ বক্সের মুখে জটলার মধ্যে বল পেয়ে জালে ঠেলে দেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মিডফিল্ডার ফন ডি বিক। ৩৯তম মিনিটে দানিলো দি’আমব্রোসিওর দূর থেকে নেওয়া জোরালো শট ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান সিলেসেন। পরের মিনিটে ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে হেড লক্ষ্যে রাখতে পারেননি লিওনার্দো বোনুচ্চি।

দ্বিতীয়ার্ধের দশম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো ডাচরা; কিন্তু মেমফিস ডিপাইয়ের কোনাকুনি শট ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক জানলুইজি দোন্নারুমা। দুই মিনিট পর পাল্টা আক্রমণে প্রতিপক্ষের ভুলে ডি-বক্সের মুখে বল পেয়েছিলেন ইম্মোবিলে; কিন্তু একমাত্র বাধা সিলেসেন বরাবর শট মেরে বসেন লাৎসিওর ফরোয়ার্ড।

বাকি সময়েও লড়াইয়ের উত্তেজনা কমেনি এক বিন্দুও। গোল পেতে মরিয়া ইতালি শেষ দিকে কিছুটা চাপ বাড়ায়, কিন্তু পার্থক্য গড়ে দিতে পারেনি তারা।

২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে উঠতে না পারার ব্যর্থতা ঝেড়ে ফেলে নতুন শুরুর ঘোষণা দেওয়া ইতালি প্রায় দুই বছর ধরে অপরাজিত। ওই বছরের নভেম্বরে নেশন্স লিগের অভিষেক আসরে সবশেষ হেরেছিল তারা। এরপর টানা ১৯ ম্যাচ ধরে অজেয় যাত্রায় ছুটছে দলটি।