মার্সেল ফ্রিজ, ওয়াশিং মেশিন, ওভেনে ফ্রি ফ্রিজসহ অসংখ‌্য পণ‌্য বা নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার

বুধবার, অক্টোবর ১৪, ২০২০

ঢাকা : শুরু হলো মার্সেলের ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন ৮। বরাবরের মতো এই সিজনেও ক্রেতাদের জন্য আছে বিশেষ সুবিধা। সিজন ৮ এ মার্সেল ফ্রিজ, ওয়াশিং মেশিন ও মাইক্রোওয়েভ ওভেন কিনলে ক্রেতাদের জন্য আছে শত শত নতুন ফ্রিজ, টিভি, এসি ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স ফ্রি পাওয়ার সুযোগ। এছাড়াও আছে লাখ লাখ টাকার নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) রাজধানীতে মার্সেল করপোরেট অফিসে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন ৮ এর ডিক্লারেশন প্রোগ্রামে এসব সুবিধা ঘোষণা করা হয়। অক্টোবরের ১৫ তারিখ থেকে পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত ক্রেতারা এসব সুবিধা পাবেন।

ডিক্লারেশন প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন—প্রতিষ্ঠানটির উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম সরকার, ইভা রিজওয়ানা নিলু ও এমদাদুল হক সরকার, ব্র্যান্ড অ‌্যাম্বাসেডর চিত্রনায়ক আমিন খান ও হেড অব সেলস ড. সাখাওয়াৎ হোসেন।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নির্বাহী পরিচালক মো. ফিরোজ আলম। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন—নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ রায়হান, আরিফুল আম্বিয়া, ফ্রিজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আনিসুর রহমান মল্লিক, সিনিয়র ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শাহজাদা সেলিম, হোম আপ্লায়েন্সের সিইও আল ইমরান, সিনিয়র অপারেটিভ ডিরেক্টর রবিউল আলম, ফার্স্ট সিনিয়র অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর রবিউল ইসলাম মিল্টন ও ফারুক আজম, মিডিয়া উপদেষ্টা এনায়েত ফেরদৌস, অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর অগাস্টিন সুজন, ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের কো-অর্ডিনেটর নাজমুল হোসাইন ইভান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানো জানানো হয়, ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের সিজন ৮ এ ক্রেতারা দেশের যেকোনো মার্সেল শোরুম থেকে ফ্রিজ, ওয়াশিং মেশিন ও মাইক্রোওয়েভ ওভেন কেনার পর পণ্যটির ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করবেন। এরপর মার্সেলের কাছ থেকে ফিরতি এসএমএসের মাধ্যমে ক্রেতারা ফ্রি পেতে পারেন মার্সেল ব্র্যান্ডেরই আরেকটি নতুন ফ্রিজ, টিভি, এসি কিংবা হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস। এছাড়া, সব ক্রেতার জন্য আছে আকর্ষণীয় অঙ্কের নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার।

মার্সেলের হেড অব সেলস ড. মো. সাখাওয়াৎ হোসেন বলেন, ‘অনলাইন অটোমেশনের আওতায় ক্রেতাদের দ্রুত বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে সারা দেশে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন চালাচ্ছে মার্সেল। এর মাধ্যমে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতিতে ক্রেতার নাম, মোবাইল নম্বর এবং বিক্রি করা পণ্যের মডেল নম্বরসহ বিস্তারিত তথ্য মার্সেলের সার্ভারে সংরক্ষণ করা হচ্ছে। ফলে, ওয়ারেন্টি কার্ড হারিয়ে ফেললেও দেশের যেকোনো মার্সেল সার্ভিস সেন্টার থেকে দ্রুত সেবা পাচ্ছেন গ্রাহক। অন্যদিকে, সার্ভিস সেন্টারের প্রতিনিধিরাও গ্রাহকের ফিডব্যাক জানতে পারছেন। এ কার্যক্রমে ক্রেতাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ফ্রি ফ্রিজ, টিভি, এসি ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স ফ্রি পাওয়ার সুযোগসহ লাখ লাখ টাকার নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার দেওয়া হচ্ছে।’

আনিসুর রহমান মল্লিক বলেন, ‘ফ্রিজের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও ফিচার নিয়ে প্রতিনিয়ত গবেষণায় আমাদের আছে শক্তিশালী গবেষণা ও উন্নয়ন (আরএন্ডডি) বিভাগ। এর ফলে ক্রেতাদের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে সাশ্রয়ী দামে বিএসটিআই’র ফাইভ স্টার এনার্জি এফিশিয়েন্সি রেটিংপ্রাপ্ত, ব্যাপক বিদ্যুৎসাশ্রয়ী ইনভার্টার প্রযুক্তির সাইড বাই সাইড গ্লাস ডোরের মতো সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ফ্রিজ। ফলে, স্থানীয় বাজারে ব্যাপক গ্রাহকপ্রিয়তা পাচ্ছে মার্সেল ফ্রিজ। আন্তর্জাতিক মান যাচাইকারী সংস্থা নাসদাত ইউনিভার্সাল টেস্টিং ল্যাব থেকে মান নিশ্চিত হয়ে মার্সেলের প্রতিটি ফ্রিজ বাজারে ছাড়া হচ্ছে। তাই ফ্রিজে এক বছরের রিপ্লেসমেন্ট সুবিধার পাশাপাশি কম্প্রেসরে ১২ বছরের গ্যারান্টি দেওয়া হচ্ছে।’

মার্সেল হোম অ্যাপ্লায়েন্সের সিইও প্রকৌশলী আল ইমরান বলেন, ‘করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যসুরক্ষায় ওয়াশিং মেশিন এবং মাইক্রোওয়েভ ওভেন অত্যন্ত জরুরি দুটি গৃহস্থালি পণ্য। সেজন্য দুর্যোগপূর্ণ এই সময়ে ক্রেতাদের অতি প্রয়োজনীয় পণ্য দুটিতে এমন সুযোগ দেওয়া হচ্ছে।’

তিনি জানান, বাজারে আছে মার্সেলের ৪ মডেলের টপ লোড অটোমেটিক ও ম্যানুয়াল ওয়াশিং মেশিন। এগুলোর দাম ৬ হাজার ৯০০ টাকা থেকে ২২ হাজার টাকা। এছাড়া, ক্রেতারা মার্সেলের মাইক্রোওয়েভ ওভেন পাচ্ছেন ১৭ হাজার ৬০০ টাকায়।

জানা গেছে, দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে সারা দেশে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্টের আওতায় ৭৪টি সার্ভিস সেন্টার আছে মার্সেলের। এর পরিপ্রেক্ষিতে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ফ্রিজের সার্ভিস দিতে সক্ষম হচ্ছে দেশীয় প্রতিষ্ঠানটি।