এমসি কলেজে ধর্ষণ ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ, অধ্যক্ষের ভূমিকায় ক্ষোভ

মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০

ঢাকা : এমসি কলেজের ছাত্রাসে গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সাথে কলেজ অধ্যক্ষ এবং হোস্টেল সুপারের ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন আদালত। কেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে না, জানতে চেয়েছেন তাও। তদন্ত রিপোর্ট ১৫ দিনের মধ্যে জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

গৃহবধূকে ধর্ষণের প্রধান আসামি সাইফুর রহমান, অর্জুন লস্কর, রবিউল ইসলামের পর এবার আদালতে মাহবুবুর রহমান রনি, রাজন ও আইনুদ্দিন। সিলেট মহানগর হাকিম আদালতে মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) কড়া নিরাপত্তায় হাজির করা হয় তাদের। পুলিশ ৭ দিন করে রিমান্ড আবেদন করলে ৫ দিন মঞ্জুর করেন আদালত। এদিনও আসামিদের পক্ষে দাঁড়াননি কোনো আইনজীবী।

এর আগে সোমবার রাতে জৈন্তাপুর থেকে গ্রেপ্তার হওয়া আসামি মাহফুজকে শাহপরাণ থানায় হস্তান্তর করে কানাইঘাট থানা পুলিশ।

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের প্রতিবাদে এমসি কলেজে বিক্ষোভ অব্যাহত আছে শিক্ষার্থীদের। ১০ দফা দাবিসহ জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন তারা।