ফের অস্থিতিশীল চালের বাজার

রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

ঢাকা : আবারও অস্থিতিশীল চালের বাজার। প্রায় সবরকম চালের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি দুই টাকা করে। ক্রেতা ও খুচরা বিক্রেতারা দায় চাপাচ্ছেন চালকল মালিকদের ওপর। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মিলাররা। তাদের দাবি, ধানের দাম বৃদ্ধিসহ, বন্যা ও করোনার প্রভাবে বেড়েছে চালের দাম। আর বাজার অস্থিরতা তৈরি করলেই কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি বাজার মনিটরিং কর্মকর্তাদের।
ঈদুল আযহার পর ফের অস্থির কুষ্টিয়ার চালের বাজার। তখন মান ভেদে কেজিতে বেড়েছিলো ৪ থেকে ৫ টাকা। এখন এর সাথে যোগ হয়েছে আরও দুই টাকা।

চালের এমন উর্ধ্বমুখিতে নাভিশ্বাস নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষের। বাজার তদারকি না থাকাকে দুষছেন তারা। তবে বরাবরের মতো মিলারদের ওপরই দায় দিচ্ছেন খুচরা বিক্রেতারা। আর চালকল মালিকদের সেই পুরনো অজুহাত ধানের দাম বাড়ায় বেড়েছে চালের দর।

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে দফায় দফায় অভিযান চালাচ্ছে মনিটরিং টিম। চালকল মালিকদের সাথে করছেন নিয়মিত বৈঠক।

চালের দাম বেড়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও দিনাজপুরের হিলিতেও। প্রতি বস্তায় তিনশো থেকে পাঁচশো টাকা বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে খেটে খাওয়া মানুষ।

অভিযোগ, ধানের দাম বাড়ার অজুহাতে, চাল গুদামজাত করে রেখেছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী।

এ অবস্থায় ওএমএসের মাধ্যমে চাল বিক্রি কার্যক্রম দ্রুত চালুর দাবি সাধারণ মানুষের।