বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন

বুধবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট : বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে শিক্ষকরা।
বুধবার ১৬ সেপ্টেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে মানববন্ধন করা হয়।

মানববন্ধনে সংগঠনের সভাপতি মোঃ বদরুল আমিন সরকার বলেন, ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা করেছিলেন বাংলাদেশে আর কোনো বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থাকবে না। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব স্বাক্ষরিত গেজেট জ দ্বারা উল্লেখ আছে যে ২৭- ৫- ২০১২ ইং তারিখের পূর্বে যথাযথভাবে স্থাপন ও চালুর জন্য আবেদন কৃত বিদ্যালয় জাতীয়করণের আওতায় আসবে।

এই প্রজ্ঞাপনের প্রেক্ষিতে ২৬ হাজার ১ শত ৯৩ টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হয়।কিন্তু দুর্ভাগ্য হলেও সত্য যে সেই সময় যথাযোগ্য যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও জাতীয় করণের জন্য তৃতীয় ধাপে ৪১৫৯ টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তথ্য চেয়ে ছিলেন।

এরপরেও ৪১৫৯ টি বিদ্যালয়ের ১৬৬৩৬ জন শিক্ষক/ শিক্ষিকা জাতীয়করণের আওতায় না আসায় আমরা বারবার শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেছি। তার পরেও সরকার মেনে না নেওয়ায় আজ আমরা মানববন্ধন করছি।

তিনি বলেন,সরকারের পক্ষ থেকে বারবার আশ্বস্ত করার পরেও জাতীয়করণ না হযওয়ায় বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকরা মানবতার জীবনযাপন করছে। এ সময় তিনি জাতীয়করণ বিরোধী বিজ্ঞপ্তি বাতিল করে দ্রুত বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের বাস্তবায়ন করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।

সংগঠনের মহাসচিব মোঃ কামাল হোসেন বলেন, সচিব মহোদয়ের স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তি দ্রুত বাতিল করে দুই সপ্তাহের মধ্যে জাতীয়করণের বাস্তবায়ন না করলে, বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্টা মোঃ হুমায়ুন কবির, মোঃ শফিকুল ইসলাম দুলাল প্রমুখ।