‘সব খুনির শাস্তি না হলে, স্বাধীন বাংলাদেশের দায় মিটবে না’

শনিবার, আগস্ট ১৫, ২০২০

ঢাকা : বঙ্গবন্ধুর সব খুনির শাস্তি না হলে, স্বাধীন বাংলাদেশের দায় মিটবে না। তাই কলঙ্কমুক্ত হতে, অধরা ৫ খুনিকে দেশে আনার দাবি জানিয়েছেন ঢাকার দুই মেয়র।

আর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জানালেন, খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে কূটনৈতিক তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। সকালে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিকে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে একথা জানান, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

পূব আকাশের সূর্যটা তখন সরাসরি ছুঁয়ে যাচ্ছে স্মৃতিস্তম্ভ। গণস্রোতের সবগুলো মানুষ মগ্ন শোক উচ্চারণে। হাতভর্তি শ্রদ্ধার্ঘ্য। করোনার দুঃসময়ে শোক আয়োজনেও স্বাস্থ্যবিধির কড়াকড়ি ছিলো। তবু নিবেদনের আন্তরিকতায় উপচে পড়েছে স্মৃতিস্তম্ভ।

সময় বেড়েছে, শ্রদ্ধাসারিও বড় হয়েছে। ৩২ নম্বরের পুরো পথজুড়ে ছিলো শোক উপস্থিতি, ছিলো জয়বাংলার বজ্র শ্লোগানও। অতৃপ্তিও ছিলো কিছু। কেননা, এখন শাস্তি পায়নি বঙ্গবন্ধুর ৫ খুনি।

ফজলে নূর তাপস বলেন, ‘আজকের এ দিনে দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটাই অনুরোধ- হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধুর সপরিবারে হত্যাকারী যারা এখনও বেঁচে আছে তাদেরকে যেন দ্রুত দেশে ফিরিয়ে বিচার কাজ সম্পন্ন করা হয়। যাতে অতি দ্রুত বাঙালি কলঙ্কমুক্ত হতে পারে। যাতে জাতির পিতাসহ সকলের আত্মা শান্তি পায়।’

বাংলাদেশের স্থপতিকে হত্যার দায়ে ছয় খুনির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়েছে। পলাতক অবস্থায় মারা গেছে আবদুল আজিজ পাশা। এখনও অধরা ৫ হত্যাকারী। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আরেকবার আশ্বস্ত করলেন, খুনিদের শাস্তি নিশ্চিতে উদ্যোগ অব্যাহত আছে।

খুনিদের মধ্যে নূর চৌধুরি কানাডায় আর এ এম রাশেদ যুক্তরাষ্ট্রে আছে।রশিদ, ডালিম ও মোসলেমউদ্দিনের অবস্থান জানতে পারেনি সরকার।