এবারই শিরোপা জয়ের মোক্ষম সুযোগ ম্যানসিটির

শনিবার, আগস্ট ১৫, ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক : চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারে উঠতে শেষ কোয়ার্টার ফাইনালে রাতে লড়বে ম্যানচেস্টার সিটি আর অলিম্পিক লিও। নামে ভারে আর শক্তিমত্তায় অনেক এগিয়ে পেপ গার্দিওলার সিটি।তবে, য়্যুভেন্তাসকে বিদায় দেয়া লিওর সামর্থ্য আছে সিটিজেনদেরো চ্যালেঞ্জ জানাবার। ম্যাচ শুরু রাত ১টায়।

ম্যানচেস্টার সিটি। ইংল্যান্ডে ওদের আধিপত্য যতটা প্রতিষ্ঠিত ইউরোপে মোটেও তা নয়। কখনই না জেতা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জয়কে টার্গেট করেই ওরা দলে ভিড়িয়ছে পেপ গার্দিওলাকে। সিটিজেনদের জন্য এবার যেন মোক্ষম সুযোগ।

ইপিএল জিততে পারে নি। ইতিহাসে প্রথমবারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেই সেই জ্বালা জুড়াতে চাইবে ম্যানচেস্টার সিটি। ঐ পথে সব চেয়ে বড় পদক্ষেপটাও নিয়ে ফেলেছে রাউন্ড অফ সিক্সটিনে। সব চেয়ে বেশি তেরবারের চ্যাম্পিয়ন রিয়ালকে দুই লেগে হারিয়ে উঠেছে কোয়ার্টার ফাইনালে।

গার্দিওলার দলই পর্তুগালের লিসবনে অনুশীলন করছে বেশ কদিন। সার্জিও আগুয়েরো ইনজুরিতে। নিশ্চিতভাবেই মিস করবেন এই ম্যাচ। সাসপেনশেন কাটিয়ে ফিরছেন গেল ম্যাচে খেলতে না পারা বেনজামিন মেন্ডি। স্কোয়াডটা তারকায় ঠাসা। পেপের হাতে তাই অপশনের কমতি নাই।

লিওর গল্পটা অন্যরকম। ঘরের মাঠে ১ গোলে জেতা ফ্রেঞ্চ ক্লাবটা তুরিনে গিয়ে য়্যুভেন্তাসের সাথে হেরেছে ২-১ এ। অ্যাগ্রিগেট ২-২ হলেও মেমফিস ডিপাইয়ের অ্যাওয়ে গোলটাই গড়ে দিয়েছে পার্থক্য।

সেমিফাইনালে উঠতে চাইলে। ম্যানসিটিকে হারাতে হলে কোয়ার্টারেও জ্বলে উঠতে হবে দলটার সব চেয়ে বড় তারকা, এক সময় ম্যানইউতে খেলে যাওয়া ডিপাইকে। লিও কোচ রুডি গার্সিয়ার হাতে আছে পুরো শক্তির স্কোয়াড। এরপরও ফেভারিট সিটি হেরে গেলে সেটা হবে বড় এক অঘটন।