বায়ু দূষণে মানুষের গড় আয়ু কমেছে প্রায় ২ বছর: গবেষণা

শনিবার, আগস্ট ৮, ২০২০

ঢাকা : বায়ু দূষণকে বলা হয়, ‘নতুন ধরণের ধূমপান’। কারণ, বায়ু দূষণের ফলে ফুসফুসের অসুখ, ক্যান্সার, হৃদরোগ এবং স্ট্রোক এইসব মারাত্মক রোগ। বায়ু দূষণ আমাদের গড় আয়ুও কমিয়ে দিচ্ছে।

শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের এনার্জি পলিসি ইনস্টিটিউট (ইপিআইসি) পরিচালিত এয়ার কোয়ালিটি লাইফ ইনডেক্সের তথ্য বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বায়ু দূষণে বিশ্বব্যাপী মানুষের গড় আয়ু প্রায় ২ বছর হ্রাস পেয়েছে।

বর্তমানে বিশ্বকে গ্রাস করেছে করোনা ভাইরাস। এর মধ্যেই মানুষের জন্য বায়ু দূষণ আরেকটি বড় হুমকি এবং করোনার মহামারির মধ্যে গবেষকরা প্রাথমিকভাবে কোভিড-১৯ সম্পর্কিত মৃত্যু এবং বায়ু দূষণের মধ্যে একটি ইতিবাচক পারস্পরিক সম্পর্ক চিহ্নিত করেছেন।

বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ এর আগেও বায়ু দূষণ মানব স্বাস্থ্যের জন্য সবচেয়ে বড় ঝুঁকি ছিল এবং শক্তিশালী ও টেকসই পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে করোনা পরিস্থিতির পরেও এ ঝুঁকি থাকবে। যক্ষ্মা, এইচআইভি বা এইডস ও ধূমপানের চেয়েও অনেক ক্ষেত্রে মানুষের আয়ু কমানোতে বেশি প্রভাব ফেলে বায়ু দূষণ।

সবচেয়ে উদ্বেগ হয়ে দাঁড়িয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায়। বিশ্বের প্রায় এক চতুর্থাংশ মানুষ বাস করে দক্ষিণ এশিয়ার চারটি দেশ- বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল এবং পাকিস্তানে। যা বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম। দুই দশক আগের তুলনায় এখন দূষণের মাত্রা ৪৪ শতাংশ বেড়ে যাওয়ায় এসব দেশে বসবাসরত মানুষের গড় আয়ু পাঁচ বছর কমেছে।