শেখ হাসিনা-ইমরানের টেলিফোন আলাপ পাকিস্তানের জন্য বড় ‘কূটনৈতিক অভ্যুত্থান’

শুক্রবার, জুলাই ২৪, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের টেলিফোন আলাপকে পাকিস্তানের জন্য একটি বড় ‘কূটনৈতিক অভ্যুত্থান’ হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর একাংশে। কলকাতার দ্য টেলিগ্রাফ পত্রিকা সেভাবেই ঘটনাটির ব্যাখ্যা করেছে।

তবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বুধবার ফোন-আলাপে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কাশ্মীরের প্রসঙ্গ তুললেও বাংলাদেশ তাকে আমল দেবে না বলেই ভারত তাদের প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে।

বিবিসি বাংলার এক প্রশ্নের জবাবে দিল্লিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর ও সেখানে সংঘটিত সব বিষয়কেই বাংলাদেশ বরাবর ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে এসেছে – এবং এখনও তার নড়চড় হওয়ার কোনও কারণ ঘটেনি বলেই ভারতের দৃঢ় বিশ্বাস।

মি. শ্রীবাস্তবের কথায়, “বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক ঐতিহাসিক ও সময়ের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ। এই অংশীদারিত্বকে আরও জোরদার করে তুলতে এবারের মুজিব বর্ষে আমরা দুই দেশ মিলে একসঙ্গে অনেক পদক্ষেপ নিচ্ছি সেটাও সবাই জানেন।“

“ভারত ও বাংলাদেশের ইতিহাস দু’পক্ষেরই আত্মত্যাগের মাধ্যমে একই সূত্রে গাঁথা”, ভারতের মুখপাত্র বলেন।

তবে ‘দ্য ইকোনমিক টাইমস’ পত্রিকা আবার লিখেছে, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কাশ্মীর প্রসঙ্গ তুলতে চাইলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেখানে তাকে মোটেই গুরুত্ব দেননি।
সূত্র: বিবিসি বাংলা