অবশেষে সুশান্তের মৃত্যুরহস্য উদঘাটন, খুনি কুখ্যাত দাউদ ইব্রাহিম!

শনিবার, জুলাই ১১, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক : বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুরহস্য নিয়ে জলঘোলা কম হচ্ছে না। কখনও তার চিঠি ঘেটে, কখনো ফোন কলের রেকর্ড খুঁজে, কখনোবা বান্ধবীদের সঙ্গে সম্পর্ককে কেন্দ্র করে খোঁজা হচ্ছে তরুণ এই অভিনেতার মৃত্যুর কারণ। এমনকি তার প্রতি বলিউডের নামিদামি পরিচালক-প্রযোজকদের অবমূল্যায়ন কিংবা প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করাকেও কেউ কেউ মৃত্যুর কারণ হিসেবে দাবি করছেন। বলা হচ্ছে, অবসাদ কিংবা হতাশা থেকে আত্মহত্যার কথাও।

হত্যা নাকি আত্মহত্যা- এ নিয়ে রহস্যের জাল যখন ক্রমশ ঘনীভূত হচ্ছে, এমন সময় সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে রীতিমতো বোমা ফাটালেন সাবেক এক ভারতীয় গোয়েন্দা কর্মকর্তা। এই প্রাক্তন RAW কর্মকর্তার নাম এনকে সুদ।

তার স্পষ্ট দাবি, আত্মহত্যা নয়, সুশান্ত সিং রাজপুতকে ঠান্ডা মাথায় খুন করেছে কুখ্যাত দাউদ ইব্রাহিম ও তার গ্যাং! ছক কষে ও পেশাদার খুনি দিয়ে এই অভিনেতাকে খুন করা হয়েছে বলেও মন্তব্য সুদ’র।

সাবেক এই ভারতীয় গোয়েন্দা কর্মকর্তার দাবি, ডন দাউদ ইব্রাহিম মুম্বাইতে না থাকলেও তার প্রভাব রয়ে গেছে। পেশিবল, অর্থ ও উচ্চপদে আসীনদের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা কমেনি। সে এখনও দূর থেকে মুম্বাইয়ের অপরাধ দুনিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করে।

এনকে সুদ আরও দাবি করেন, গত কয়েক মাস ধরেই সুশান্তকে হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছিল। এজন্য তিনি প্রায় ৫০ বার সিম কার্ড পাল্টেছেন। কেউ তাকে খুন করতে পারে এই আশঙ্কায় তিনি গাড়িতে ঘুমাতেন।

ডন দাউদের কোনও অনুসারীর হাতে সুশান্ত খুন হওয়ার জোর সম্ভাবনা দেখছেন সুদ।

সুশান্তের খুনের নেপথ্যে আন্ডারওয়ার্ল্ডের গভীর যোগসূত্র রয়েছে দাবি করে সাবেক এই RAW অফিসার আরও জানান, সুশান্তের মৃত্যুর আগের দিন সিসিটিভি ক্যামেরা বন্ধ করে দেয়া থেকে শুরু করে, ডুপ্লিকেট চাবি হারিয়ে যাওয়ার মতো অনেক তথ্যপ্রমাণ আছে। এসব ঘটনা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয় যে সুশান্তকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছিল।

সুদ আরও খোলাসা করে দাবি করেন, সুশান্ত সিং রাজপুতের খুনের পেছনে তার গৃহকর্মী, বন্ধু ও বলিউডের একাধিক প্রভাবশালী ব্যক্তির হাত রয়েছে।