বশেমুরবিপ্রবিতে বশেমুরবিপ্রবি দিবস উদযাপন

বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০

ফয়সাল হাবিব সানি, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি : করোনা সংকটের দরুণ অনাড়ম্বরপূর্ণভাবেই পালিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি) দিবস। আর এতে করে ১৯ বছর অতিক্রম করে ২০ বছরে পা দিয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পুণ্যভূমি গোপালগঞ্জে প্রতিষ্ঠিত তাঁর নিজ নামে নামাঙ্কিত এই বিশ্ববিদ্যালয়।

আজ বুধবার (০৮ জুলাই) সকাল ১১টায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বেলুন উত্তোলন ও কেক কেটে বশেমুরবিপ্রবি দিবস আয়োজনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহজাহান। এছাড়াও, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মোঃ নূরউদ্দিন আহমেদ, প্রক্টর ড. রাজিউর রহমান, আইন অনুষদের ডীন মোঃ আব্দুল কুদ্দুস মিয়া, শেখ রাসেল হলের প্রভোস্ট মোঃ ফায়েকুজ্জামান মিয়া, স্বাধীনতা দিবস হলের প্রভোস্ট ও বাংলা বিভাগের সভাপতি মোঃ আব্দুর রহমান, বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম, অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম হিরা, সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিদ মিয়া, কর্মচারী সমিতির সভাপতি মোঃ তরিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক বি. এম আশিকুর রহমান প্রমুখসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের চলতি (ভারপ্রাপ্ত) উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহজাহান সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে বশেমুরবিপ্রবি পরিবার ও দেশবাসীর উদ্দেশে শুভেচ্ছা বাণী প্রদান করেন।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ১৪ জুলাই রিজেন্ট বোর্ডের ৭ম সভায় অন্যান্য বছরের ন্যায় প্রতিবছর ৮ জুলাই বশেমুরবিপ্রবি দিবস পালনের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। আর ২০০১ সালের ৮ জুলাই মহান জাতীয় সংসদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি) আইন পাস করা হয়। তবে পরবর্তীতে বিএনপি-জামাত সরকার ক্ষমতায় আসীন হলে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম সম্পূর্ণরূপে বন্ধ হয়ে যায় এবং ২০০৯ সালে পুনরায় শেখ হাসিনা সরকার ক্ষমতাভুক্ত হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় কার্যক্রম পুনরায় চালু করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষ থেকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক শিক্ষা কার্যক্রম আরম্ভ হয়। এর আগে ২০১০ সালের ২০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) আইন বাস্তবায়নের নিমিত্তে সরকার এসআরও জারি করেন।