‘ফ্রিতে কাজ করিয়ে জুতা ছোঁড়ার অধিকার কে দিয়েছে তোমার বাবাকে?’

বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের ‘ভাট ক্যাম্পে’র সঙ্গে কঙ্গনা রানাউতের সংঘাত নতুন নয়! একাধিকবার কাদা ছোঁড়াছুড়ি হয়েছে। কদর্য ভাষায় মহেশ, মুকেশ এবং আলিয়া ভাটদের আক্রমণ করেছেন কঙ্গনা। এবার ফের পূজা ভাট এবং কঙ্গনা রানাউতের দড়ি টানাটানি নিয়ে সরগরম নেটদুনিয়া।

প্রসঙ্গ ‘সেই নেপোটিজম’! “ভুলো না ভাটরাই তোমাকে লঞ্চ করেছিল কঙ্গনা!”, পূজার সেই মন্তব্যের ভিত্তিতেই কঙ্গনা পালটা প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন যে, “বিনা পয়সায় কাজ করিয়ে জুতা ছোঁড়ায় অধিকার কে দিয়েছিল তোমার বাবাকে?” ব্যস, দুই অভিনেত্রীর এই কথোপকথনই এখন নেটদুনিয়ার আলোচ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

“ট্যালেন্ট থাকুক না থাকুন, তারকা-সন্তান ছাড়া ইন্ডাস্ট্রিতে বাইরে থেকে আসা শিল্পীদের তেমন আমলই দেওয়া হয় না! বরং, দক্ষতা থাকলেও কোণঠাসা করে রাখা হয় তাদের”, অভিযোগ কঙ্গনার। বলিউড ক্যুইনের সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই মুখ খুলেছিলেন মহেশ ভাটের বড় মেয়ে পূজা ভাট।

অভিনেত্রীর মন্তব্য, “কঙ্গনার অসাধারণ প্রতিভা। তা না হলে ‘গ্যাংস্টার’ ছবিতে বিশেষ ফিল্মস ওকে লঞ্চ করত না। ওঁকে আবিষ্কার করেছিলেন পরিচালক অনুরাগ বসু ঠিকই, তবে ভাটরাই সেই ছবির জন্য টাকা ঢেলেছিল! একটা সময় ছিল যখন তারকারা ভাটদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতেন যে, তাঁরা শুধু নবাগত, উঠতি তারকাদের নিয়ে কাজ করেন। আর এখন তাঁরাই স্বজনপোষণের অভিযোগ আনছে দেখে আমার হাসি পায়!”

পূজার এই মন্তব্য নিয়ে নেটদুনিয়ায় শোরগোল হতেই কঙ্গনা চুপ করে থাকেননি। পালটা দিলেন। বললেন, “হ্যাঁ, অনুরাগ বসুর জহুরীর চোখ আমার ট্যালেন্ট চিনেছিল। সবাই জানে, তোমার কাকা মুকেশ ভাট কাজ করিয়ে শিল্পীদের টাকা-পয়সা দিতে চান না! কিন্তু, তোমার বাবাকে আমার উপর জুতা ছোঁড়ার অধিকার কে দিয়েছিল?

‘উন্মাদ’ বলে অপমান করে আমার কেরিয়ারে শেষ হয়ে যাওয়া এমনকী চূড়ান্ত পরিণতির ভবিষ্যদ্ববাণীও করেছিলেন! ঠিক যেমনটা সুশান্তের ক্ষেত্রে করেছেন! সুশান্ত-রিয়ার সম্পর্কেই বা কে ওঁকে নাক গলাতে বলেছিল? একটু জিজ্ঞেস করো তো তোমার বাবাকে!”