ক্ষুধায় প্রতিদিন ১২ হাজার মানুষের মৃত্যু হবে: অক্সফাম

বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যত মানুষ মারা যাবে, তার চেয়েও বেশি মৃত্যু হবে মহামারির বিরুপ প্রভাবে সৃষ্ট অনাহারের কারণে- এমন সতর্কবার্তা দিয়েছে আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম।

‘দ্য হাঙ্গার ভাইরাস’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদনে এই শঙ্কার চিত্র তুলে ধরেছে অক্সফাম। তারা বলছে, কোভিড মহামারির কারণে তৈরি হতে যাওয়া অনাহারে বছর শেষে রোজ ১২ হাজার মানুষের মৃত্যু হবে। যেখানে এপ্রিলে ‘পিক টাইমে’ দৈনিক ১০ হাজার মানুষ মারা গেছে ভাইরাসের কারণে।

ব্যাপক বেকারত্ব, লকডাউনে খাদ্য উৎপাদন ব্যহত হওয়া ও সরবরাহ কমে যাওয়ায় তৈরি হবে এই ক্ষুধামন্দা। যাতে বিশ্বের ১২ কোটি ২০ লাখের বেশি মানুষ অনাহারের প্রান্তে চলে যাবে। অক্সফাম তাদের প্রতিবেদনে বলছে- আফগানিস্তান, সিরিয়া ও দক্ষিণ সুদানসহ ১০টি দেশকে চিহ্নিত করেছে যাদের খাদ্য সংকট গুরুতর আকার ধারণকরেছে।

উদাহরণ হিসেবে আফগানিস্তানের নাম তারা উল্লেখ করেছে। সেখানে লাখ লাখ মানুষ দুর্ভিক্ষের মুখে। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে দেশটিতে খাদ্য সংকটে ভুগেছিল সাড়ে ২০ লাখ মানুষ, এ বছরের মে মাসে তা বেড়ে হয়েছে সাড়ে ৩০ লাখ।

সীমান্ত বন্ধের কারণে খাদ্য সরবরাহ ও অর্থনৈতিক স্থবিরতা কমে যাওয়া প্রবাসী আয়ও কমে গেছে বলেছে অক্সফাম। ভারত, ব্রাজিল ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো মধ্যম আয়ের দেশগুলোকে ‘ক্ষুধার উদীয়মান উপকেন্দ্র’ হিসেবে দেখছে সংস্থাটি, যেখানে লাখ লাখ মানুষ সামাজিক ও অর্থনৈতিক সংকটের মুখে।

অক্সফাম গ্রেট ব্রিটেনের প্রধান নির্বাহী ড্যানি শ্রীসকান্দারাজাহ বলেছেন, ‘কোভিড-১৯ এর প্রভাব ভাইরাসের চেয়েও বিস্তৃত, লাখ লাখ দরিদ্রকে আরও ক্ষুধা ও দারিদ্র্যের দিকে ঠেলে দিচ্ছে এটি।’