করোনাকালে বিলাসবহুল বাংলো কিনলেন আয়ুষ্মান

বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক : গত মার্চ থেকেই ভারতে দফায় দফায় লকডাউন চলছে। এজন্য আর সব কিছুর সাথে বলিউডের শুটিংও বন্ধ। তাই কড়াকড়ি কিছুটা শিথিল হতেই শৈশবের শহর চণ্ডীগড়ে পাড়ি দিয়েছিলেন আয়ুষ্মান খুরানা। যে শহরের আনাচকানাচে ছড়িয়ে আছে তার হাজারো স্মৃতি। স্ত্রী তাহেরা কশ্যপের সঙ্গে প্রথম দেখা, প্রথম প্রেমে পড়া সবই এই শহরেই পদার্থবিজ্ঞান কোচিংয়ে। এবার শৈশবের শহরে সবাই মিলে একসঙ্গে থাকতে চান আয়ুষ্মান। তাই চণ্ডীগড়ের পাচকুলাতে করোনার মধ্যেই এক বিলাসবহুল বাংলো কিনে ফেললেন এই বলিউড সুপারস্টার। বাংলোর দাম পড়েছে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১০ কোটি ১৭ লাখ টাকা।

আয়ুষ্মান পরিবারের সবাই চণ্ডীগড়ে এক হয়ে সময় কাটাতে চান। কিন্তু বাদ সাধে তাদের বাসা। তাই এবার এক বড়সড় বাংলোই কিনে ফেললেন তিনি। এখান পরিবারের সবাই মিলে হইচই করে দিন কাটাতে পারবেন। এ প্রসঙ্গে আয়ুষ্মান বলেছেন, ‘আমি নই, বলুন খুরানারা নতুন বাড়ি কিনেছে। আমরা সবাই মিলে এই বাড়িটি কেনার পরিকল্পনা করি। যে বাড়িতে পরিবারের সবাই একসঙ্গে থাকতে পারবে।’

স্ত্রী তাহিরা কাশ্যপকে নিয়ে আয়ুষ্মান গত ৬ জুলাই রেজিস্ট্রেশন দপ্তরে গিয়েছিলেন। জানা গেছে, আয়ুষ্মান এই বাংলোটি চণ্ডীগড়ের পাচকুলার সেক্টর ৬-থেকে কিনেছেন। কাগজপত্রে বাংলোটির দাম লেখা ‘৯ কোটি রুপি’।

কিছু দিন আগে চণ্ডীগড়ের পথেঘাটে আয়ুষ্মানকে দেখা গিয়েছিল। নিজেকে ফিট রাখতে সাইকেল নিয়ে তিনি বেরিয়ে পড়েছিলেন চণ্ডীগড়ের রাস্তায়। মুখে মাস্ক থাকার জন্য কেউ চিনতে পারেনি। এ প্রসঙ্গে আয়ুষ্মান বলেন, এই সময়ে ফিট থাকা অত্যন্ত জরুরি।

কিছুদিন আগেই আমাজন প্রাইম এ আয়ুষ্মান অভিনীত ছবি ‘গুলাবো সিতাবো’ মুক্তি পেয়েছে। সুজিত সরকার পরিচালিত এই ছবিতে আয়ুষ্মান ছাড়াও আছেন অমিতাভ বচ্চন। ইতিমধ্যে ছবিটি দর্শক ও সমালোচকের প্রশংসা কুড়িয়েছে।

শুরুতে আয়ুষ্মান খুরানা প্রতি ছবিতে ৯০ লাখ থেকে ১ কোটি রুপি নিতেন। ‘ড্রিম গার্ল’ সিনেমার পর থেকেই বেড়ে যায় তার পারিশ্রমিক। আয়ুষ্মান খুরানার ম্যানেজার ও দল সাফ জানিয়ে দিয়েছে, এখন থেকে সাড়ে ৩ কোটি রুপির কম নয়। অর্থাৎ এখন থেকে ছবিপ্রতি আয়ুষ্মানের পারিশ্রমিক বাংলাদেশি মুদ্রায় কমপক্ষে সাড়ে চার কোটি রুপি।