দিল্লি ছেড়ে চলে যাচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

শুক্রবার, জুলাই ৩, ২০২০

ভারত ডেস্ক: বিজেপি শাসিত ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশে দিল্লির সরকারি বাংলো, ৩৫ নম্বর লোধি এস্টেট ছেড়ে দিচ্ছেন সোনিয়া কন্যা ও কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। আপাতত তিনি লখনৌতে প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর কাকিমার সেই বাংলোতে ঘাঁটি গাড়বেন। সেখান থেকেই চালাবেন দলের রাজনৈতিক কাজকর্ম।

ইন্ডিয়া টুডের খবরে বলা হয়েছে, কংগ্রেসের হাইকমান্ডের নির্দেশে, লখনৌতে দলটির প্রয়াত নেত্রী শীলা কউলের অভিজাত বাড়িটিতেই থাকবেন প্রিয়াঙ্কা। গত ৬ মাস ধরেই সেটি বাড়িটি সংস্কারের কাজ চলছিল।

কিন্তু বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঈশারাতেই দেশটির আবাসন মন্ত্রণালয় প্রিয়াঙ্কাকে বাড়ি ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে বলে অভিযোগ কংগ্রেসের। ১৯৯৭ সাল থেকে লোধি এস্টেটেই ছিলেন প্রিয়াঙ্কা। নিরাপত্তার কারণে সেই দেয়া হয়েছিল তাকে। এখন তিনি আর এসপিজি সিকিউরিটির আওতাধীন নয়। তাই তাকে বাড়ি ছাড়ার পাশাপাশি মেটাতে হবে ৩ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা। ইতোমধ্যেই প্রিয়াঙ্কা সেই টাকা পরিশোধ করেছেন।

উত্তরপ্রদেশ কংগ্রেসের মুখপাত্র লালন কুমার জানিয়েছেন, দিল্লির সরকারি বাংলো খালি করার কেন্দ্রীয় সরকারের নোটিশের অনেক আগে থেকেই প্রিয়াঙ্কার লখনৌতে থাকার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। প্রিয়াঙ্কার থাকার উপযোগী করতে ওই বাড়িটিতে গত ৬ মাস ধরে সংস্কার কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন দিল্লির কংগ্রেস নেতা দীপক সিং।

এর আগে গেল মঙ্গলবার (৩০ জুন) এক মাসের নোটিশে চলতি বছরের ১ আগস্টের মধ্যে লোধি এস্টেট খালি করে দিতে কেন্দ্রীয় সরকারের নগর উন্নয়ন মন্ত্রণালয় থেকে প্রিয়াঙ্কাকে নোটিশ পাঠানো হয়।