বিচারপতিকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুক্তি করায় যুবক কারাগারে

শনিবার, মে ৩০, ২০২০

সানাউল হক, নেত্রকোনা প্রতিনিধি : হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুক্তি করায় নেত্রকোণায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এর আগে রাত ১১টার দিকে মোহনগঞ্জ থানায় মোহনগঞ্জ পৌর শহরের খাইরুল ইসলাম মজুমদার নামে এক ব্যক্তি তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা করেন।

শুক্রবার ভোর রাতে গ্রেপ্তার ইলিয়াস আহমেদ (২৯) বারহাট্টা উপজেলার নুরুল্লারচর গ্রামের বাসিন্দা।ওই যুবক ইসলামী ছাত্র খেলাফত বাংরাদেশের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক। তাকে তার গ্রাম থেকেই গ্রেপ্তার করে মোহনগঞ্জ থানা পুলিশ।

গত ৯ এপ্রিল গৃহকর্মী মারুফা আক্তারের লাশ উদ্ধারের পর মোহনগঞ্জ থানায় দায়ের হত্যা মামলায় বারহাট্রার সিংধা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ মাহবুব মোর্শেদ কাঞ্চন গ্রেপ্তার হন। গ্রেপ্তারের দুইদিনের মাথায় আদালতে জামিন হয় চেয়ারম্যানের।

মোহনগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আহাদ খান জানান,মারুফা হত্যা মামলাকে কেন্দ্র করে হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনসহ বিশিষ্টজনের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুকে) কটুক্তি করাসহ অপপ্রচার চালান ইলিয়াস আহমেদ। এ ঘটনায় শুক্রবার তথ্য প্রযুক্তি আইনে ব্যবসায়ী খাইরুল ইসলাম মজুমদার মামলা করলে ইলিয়াসকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওসি আরো জানান, ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে।গ্রেপ্তার ইলিয়াসকে আদালতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে ।

মামলার বাদী খাইরুল ইসলাম মজুমদার বলেন, ওবায়দুল হাসান শাহীন মোহনগঞ্জের কৃতী সন্তান। তাকে নিয়ে আমরা গর্ব করি। সুতারাং কেউ তাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুক্তি করবে এটা কোন ভাবেই কাম্য নয়। তাই সম্মানী ব্যক্তির যেন সম্মানহানী না হয়, সে জন্যই স্বতপ্রণোদিত হয়ে মামলা করেছি।