যেসব অবস্থায় ভুলেও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করবেন না

শুক্রবার, মে ২৯, ২০২০

করোনা ভাইরাসের সংক্রামন প্রতিরোধে আমরা হাত ধোয়াঁ এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজারে অভ্যস্ত। যদিও হাতের জীবাণু দূর করতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বেশ কার্যকরী, তবে এর অতিরিক্ত ব্যবহার ক্ষতির কারণ হতে পারে। অতিরিক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করলে তা ভালো ব্যাকটেরিয়াগুলোকে মেরে ফেলতে পারে যা আমাদের ত্বক এবং শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

সাবান ও পানি

আপনার পাশেই যদি সাবান ও পানি থাকে তাহলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বাদ দিন। কারণ, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধের বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংশ্লিষ্ট সংস্থার মতে, জীবাণু থেকে মুক্তি পাওয়ার সর্বোত্তম উপায় হলো সাবান ও পানি দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড হাত ধোয়া। যেকোনো পরিস্থিতিতে হাত পরিষ্কার করার জন্য সাবান ও পানি প্রথম পছন্দ হওয়া উচিত।

অধিক পরিমাণে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার নয়

জীবাণু ধ্বংসের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা ভালো। তবে অধিক পরিমাণে এটি ব্যবহার করলে হাতের ভালো ব্যাকটেরিয়াকেও এটি মেরে ফেলতে পারে। যা আমাদের সুস্থ রাখতে ভূমিকা রাখে। এই ভালো মাইক্রোবায়োমগুলোকে বাঁচাতে ঠিক কতটুকু হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা উচিত তা নির্ণয় করা অবশ্য কঠিন। তবে কিছু কাজ রয়েছে যেগুলো করলে আপনি হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবহার এড়াতে পারবেন।

যখন কেউ আপনার পাশে হাঁচি দেয়

সত্যি বলুন, আপনার পাশে বসে কেউ হাঁচি দিলে আপনি কতবার হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করেছেন? অনেক বার, তাই না? আসল বিষয়টি হলো কেউ যখন আপনার কাছাকাছি কাশি করে বা হাঁচি দেয়, আপনি শ্বাস নেয়ার সময় বাতাসের ফোঁটা থেকে সংক্রমণটি ধরবেন। দূষিত হাত সংক্রমণ ধরার একমাত্র উপায় নয়। আপনার কাছে যখন কেউ কাশি বা হাঁচি দিচ্ছেন তখন বারবার আপনার হাত স্যানিটাইজ করবেন না।

আপনি কাউকে বা কিছুই স্পর্শ করেনি

হয়তো কোনও কিছুই স্পর্শ করেননি। এরপরও স্যানিটাইজার ব্যবহার করছেন। এটা অনেকের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। গবেষকরা বলছেন, এতে করে উল্টো কিছু ব্যাকটেরিয়া স্যানিটাইজার সহনীয় হয়ে ক্ষতির কারণ হতে পারে। অনেকেই রাস্তায় হাঁটা অবস্থায় বা কোথাও বসে থাকা অবস্থায় স্যানিটাইজার ব্যবহার করেন। গবেষকরা বলছেন, যখন কোনও কিছু খেতে হবে বাইরে, সে সময় পানি না থাকলে স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন।

মাত্র ৫ মিনিট আগে স্যানিটাইজার ব্যবহার করেছেন

হয়তো পাঁচ মিনিট আগেই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করেছেন। এরপরও অতি সতর্কতার কারণে ঘন ঘন ব্যবহার করলে আপনার ত্বকে শুষ্ক হয়ে ওঠার আশংকা আছে বলে জানিয়েছেন ডাক্তাররা। সিডিসি সুপারিশ করেছে বারবার স্যানিটাইজার ব্যবহার না করে কোনও কিছু ধরার পর একবারই ২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে দুই হাত ভালোভাবে স্যানিটাইজার দিয়ে ঘষে নিতে।

বাচ্চাদের পাশে থাকলে স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন

হ্যান্ড স্যানিটাইজার বাচ্চাদের উপর ব্যবহার করা নিরাপদ কারণ স্যানিটাইজারের ফলে শরীরে অ্যালকোহলের কোনো উল্লেখযোগ্য শোষণ হয় না। তবে অ্যালকোহলভিত্তিক স্যানিটাইজারের ইনজেশন বা শ্বাস গ্রহণের ফলে বিষক্রিয়া হতে পারে। ২০১১ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত, মার্কিন বিষ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রগুলি শিশুদের মধ্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার এক্সপোজার সম্পর্কে প্রায় ৮৫ হাজার কল পেয়েছিল। এ ধরনের হ্যান্ড স্যানিটাইজার কখনো সহজ জায়গাগুলোতে রাখা উচিত নয়।

হয়তো ঠাণ্ডা বা অন্য কোনও সাধারণ অসুখে ভুগছেন আপনি। এরপরও বাইরে বের হওয়ার সময় হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করলেই নিজে নিরাপদ থাকবেন সে ধারণা ঠিক না। একই সাথে আপনার জন্য অন্যরাও যাতে ফ্লুতে আক্রান্ত হতে না পারে, সে চিন্তা করে ঘরেই থাকা উচিৎ সবার।