বিজেপির ইসলাম-বিদ্বেষ নিয়ে ওআইসির কমিটি আটকে দিল আমিরাত

বৃহস্পতিবার, মে ২৮, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: ইসলাম-বিদ্বেষের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে পাকিস্তানের একটি প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং মালদ্বীপ।

ডন জানায়, জাতিসংঘে ইসলামোফোবিয়া বিষয়ে ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি) দূতদের একটি অনানুষ্ঠানিক কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেয় পাকিস্তান।

জাতিসংঘে ওআইসিভূক্ত দেশের দূতদের নিয়ে নিয়মিত একটি বৈঠকে ইসলামোফোবিয়া বিষয়ে আলোচনা তুলেন পাকিস্তানের দূত মুনির আকরাম।

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি কর্তৃক জম্মু-কাশ্মীরের মুসলিমদের দুর্দশার বিষয়টি বিশেষভাবে তুলে ধরেন পাকিস্তানি দূত।

তিনি জানান, কভিড-১৯ পরিস্থিতিতে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ইসলামোফোবিয়া আরও বেশি স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। এ ছাড়া অ-কাশ্মীরিদের সেখানে স্থায়ী বসবাসের অনুমতি দিয়ে উপত্যকার জনমিতি পরিবর্তনের অভিযোগও আনেন তিনি।

ওআইসির সদস্যদের ভারত দ্বারা ‘প্রতারিত’ হওয়া থেকেও সতর্ক করেন মুনির আকরাম। তিনি ইসলামোফোবিয়ার বিরুদ্ধে লড়তে জাতিসংঘে একটি যৌথ পদক্ষেপ গ্রহণের প্রস্তাব দেন।

এর প্রতিক্রিয়ায় জাতিসংঘে মালদ্বীপের দূত তিলমিজা হুসাইন ভারতকে ‘আলাদাভাবে দেখাকে’ প্রত্যাখ্যান করেছেন। তার মতে, ইসলামোফোবিয়ার জন্য দিল্লিকে অভিযুক্ত করা ভুল হবে এবং দক্ষিণ এশিয়ার ধর্মীয় সম্প্রীতির জন্য এটি ক্ষতিকর হবে।

একইভাবে আরব আমিরাতও পাকিস্তানের প্রস্তাবকে নাকচ করে দিয়েছেন। তার মতে, এমন পদক্ষেপ নিতে পারে ওআইসির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা।