কুড়িগ্রামে নৌকাডুবি: নিখোঁজ ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার

বৃহস্পতিবার, মে ২৮, ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: বৌভাতের অনুষ্ঠান শেষে ফেরার পথে কুড়িগ্রামে ধরলা নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় কনের বাবাসহ নিখোঁজ চারজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। বৃহস্পতিবার (২৮মে) সকাল ১১টায় রংপুর ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত মরদেহগুলো কনের বাবা নূর ইসলাম, আমেনা বেগম, নূর ইসলাম ও কামরুজ্জামান নামে চার ব্যক্তির। এরা সবাই উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের যমুনা রায়পাড়ার বাসিন্দা।

আজ বুধবার (২৭ মে) বিকালে বৌভাতের অনুষ্ঠান থেকে ফেরার পথে কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের বকসীগঞ্জ বাজার থেকে পূর্বদিকে সাতভিটা নামক স্থানে ধরলা নদীর একটি অংশে এ নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে।

কলাকাটারচর নামক স্থানে একটি বিয়ের বৌভাত অনুষ্ঠান থেকে একটি শ্যালো ইঞ্জিন চালিত নৌকায় কনে পক্ষের প্রায় ৫০ জন যাত্রী বকসীগঞ্জ ঘাটে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে সাতভিটা নামক স্থানে ঝড়বৃষ্টির কবলে পড়ে নৌকাটি ডুবে যায়। এ সময় অনেকে সাঁতরিয়ে তীরে উঠতে সক্ষম হলেও কনের বাবা নূর ইসলাম ও আমেনা বেগম নামে এক নারীসহ চারজন নিখোঁজ হন।

কুড়িগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক মনোরঞ্জন সেন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে রংপুর থেকে ডুবুরি দল এসে উদ্ধার কাজ শুরু করলে নৌকাডুবির ঘটনাস্থল থেকে কনের বাবা নূর ইসলাম সহ নিখোঁজ চার ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।