করোনাকালে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে আমলকি

মঙ্গলবার, মে ২৬, ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট সংকটপূর্ণ এই পরিস্থিতিতে শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে সবকিছুর আগে প্রাধান্য দেওয়া উচিত। বর্তমানে বিশ্বে মহামারি ছড়িয়ে পড়ার কারণে এটি আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। একটি শক্তিশালী ইমিউন সিস্টেম হলো প্রাণঘাতী ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষার প্রথম ধাপ। এর সবচেয়ে সহজ উপায় হলো স্বাস্থ্যকর ডায়েট খাওয়া। পুষ্টিগুণে ভরপুর স্বাস্থ্যকর এবং সুষম খাদ্য আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সবচেয়ে বেশি কার্যকরী।

এমতাবস্থায় সস্তা ও সহজলভ্য একটি ফল, যা সহজেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করতে পারে তা হলো আমলকি। আমলকি, যাকে ভারতীয় গুজবেরিও বলা হয়, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এবং রোগ উপশম করতে সহায়তা করে। জেনে নিন কেন আমলকি আমাদের শরীরের জন্য ভালো-

ক্রোমিয়াম

আমলকিতে আছে ক্রোমিয়াম যা দেহের খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে সহায়তা করে। হার্ট হলো আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ যা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে। সুতরাং, হার্ট-স্বাস্থ্যকর ডায়েট খাওয়াই সেরা। তাই নিয়মিত আমলকি খান।

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ

আমলকিতে বিভিন্ন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা ফ্রি র‌্যাডিক্যাল নিরপেক্ষ করতে সহায়তা করতে পারে এবং এইভাবে আপনাকে অনেক রোগ থেকে বাঁচায়। আমলাতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্যও রয়েছে যা আপনার সিস্টেমকে ডিটক্সাইফ করতে এবং ব্রণ এবং খুশকি হ্রাস করতে সহায়তা করে।

চর্বি পোড়াতে সহায়তা করে

স্থূলত্ব কেবল একটি নয়, হৃদরোগ এবং ডায়াবেটিসসহ অনেক রোগের সাথে যুক্ত। আমলকি আপনার ওজন কমানোর পাশাপাশি একটি স্বাস্থ্যকর বিএমআই অর্জনে সহায়তা করতে পারে। আমলকিতে থাকা ফাইবার হজমে উন্নতি করে।

সর্দি এবং কাশি থেকে মুক্তি দেয়

আমরা সবাই জানি করোনাভাইরাস হলো শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ। সুতরাং শ্বাসযন্ত্রের ব্যবস্থা শক্তিশালী করা জরুরি। আমলকি আপনাকে এই কাজে সহায়তা করতে পারে। আমলকি কাশি এবং সর্দি দূর করতে দীর্ঘকাল ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আমলকিতে থাকা ভিটামিন সি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও উন্নত করে।

আমলকি খাওয়ার সেরা উপায়

আমলকি বাজারে সহজেই পাওয়া যায় এবং বিভিন্ন উপায়ে খাওয়া করা যায়। আপনি বাজারে প্যাকেজড আমলা জাম, মোরব্বা এমনকি আচারও পেতে পারেন তবে সবচেয়ে বেশি উপকার পেতে এগুলো ঘরেই তৈরি করে খান। আপনি বাড়িতে সাধারণ আমলার চাটনি বা আচার তৈরি করতে পারেন। যদি টক খাবার পছন্দ করেন তবে কিছুটা লবণ দিয়ে কাঁচাও খেতে পারেন।