গৃহবন্দি উপার্জনহীন মানুষের পাশে “এসো বাঁচতে শিখি”

মঙ্গলবার, এপ্রিল ২১, ২০২০

ইবি প্রতিনিধি : প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস আতঙ্কে থমকে গেছে পুরো বিশ্ব। এ ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মানুষের এখন একমাত্র নিরাপদ স্থান হচ্ছে ঘর। ঘরে অবস্থান করার ফলে উপার্জনহীন হয়ে পড়েছে খেটে খাওয়া দরিদ্র ও অসহায় মানুষেরা। ফলে, সংসার কীভাবে চলবে এনিয়ে উৎকন্ঠায় দিন পার করছে তারা।

উপার্জনহীন এসব অসহায় মানুষদের মাঝে মানবতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে নরসিংদী জেলার কিছু আত্নত্যাগী তরুণদের উদ্যোগে গঠিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “এসো বাঁচতে শিখি”। সোমবার রাতের আঁধারে নরসিংদী জেলার মনোহরদী উপজেলার বেশ কিছু গ্রামের দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন সংগঠনটির সদস্যরা।

জানা যায়, সংগঠনের সদস্যরা নিজেদের সাধ্যমত অর্থ প্রদান করে প্রায় ১৬,০০০ হাজার টাকার একটি ফান্ড গঠন করে। এ অর্থ দিয়ে অস্বচ্ছল প্রায় ৫৫ টি পরিবারের মুখে হাঁসি ফোটাতে চাল, ডাল, লবণ, পেয়াজ, তপল, আলু ও সাবান বিতরণ করে তারা। কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী শাওন ভূঞা তপুর নেতৃত্বে রাতের আঁধারে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে উপার্জনহীন এসব অসহায়দের বাড়ি বাড়ি এসব খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেন সংগঠনটির সদস্যরা।

এসময় রফিকুল ইসলাম, মো: টিপু মিয়া, শাওন আহমেদ, ফয়সাল আহমেদ, ফুয়াদ আহমেদ, পর্না আক্তার ও তাসলিমা বেগম সহ সংগঠনটির অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

অসহায়দের সাহায্যে তাদের এ মহৎ কাজে কেউ অনুদান পাঠাতে চাইলে 01717203301 নাম্বারের যোগাযোগ করতে বলা হচ্ছে। পাশাপাশি তাদের সাথে যুক্ত হতে চাইলে https://www.facebook.com/eshoBachteSikhi/ লিংকে প্রবেশ করতে হবে।

এ বিষয়ে সংগঠন টির প্রধান শাওন ভূঞা তপু বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য ছিল সমাজের অসহায় মানুষদের সাহায্য করা। তাদের জন্য কিছু করতে পেরেছি এটাই আমাদের সংগঠনের স্বার্থকতা। নিম্ন আয়ের মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য আমরা আরও কিছু দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। সকলের সহযোগিতার মাধ্যমে আমাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, সামাজিক এ সংগঠন টি সামাজিক দূরত্ব এবং মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে ইতোপূর্বে ফেসবুক ভিত্তিক করোনা সচেতনতা মূলক লিফলেট এবং বিভিন্ন মসজিদে সাবান বিতরণ করে। তাছাড়াও আরও কিছু দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে সংগঠনটি।