প্রেম হোক অফলাইনে

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৯, ২০২০

লাইফস্টাইল ডেস্ক : সারাদিন হাতে স্মার্টফোন, ল্যাপটপ, সোশাল মিডিয়া। গ্যাজেটের এই অমোঘ টানের আঁচ পারস্পরিক সম্পর্কের উপরেও পড়ছে। দাম্পত্যজীবনও তার ব্যতিক্রম নয়। সোশাল মিডিয়ায় ডুবে থাকছেন স্বামী স্ত্রী দু’জনেই, ফলে স্বাভাবিক কথাবার্তার পরিমাণ, একে অন্যের সঙ্গে সময় কাটানো ক্রমশ কমছে। এক বাড়িতে থেকেও বিচ্ছিন্ন দ্বীপের মতো রয়েছেন দু’জনে, সৌজন্যে ডিজিটাল দুনিয়া।

মনোবিদেরাও এখন বলছেন, ডিজিটাল জগতের প্রতি অত্যধিক আকর্ষণ স্বাভাবিক প্রেমের পথে কাঁটা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। আজকাল মানুষ ভার্চুয়াল জগতের সঙ্গে এতটাই জড়িয়ে পড়েছে যে পাশের লোকটার সঙ্গেও তার কোনও যোগ থাকছে না। ফলে ব্যক্তিগত সম্পর্কে প্রবল জটিলতা তৈরি হচ্ছে। প্রযুক্তি আর সোশাল মিডিয়ার প্রতি একধরনের নির্ভরতা তৈরি হয়ে যাচ্ছে, ফলে স্বাভাবিক সম্পর্কগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, এবং তার ফলে কমিটমেন্টের সমস্যাও দেখা দিচ্ছে।

আপনার আর আপনার স্বামীরও কি সারাদিন স্মার্টফোন বা সোশাল মিডিয়া ডুবে থাকা অভ্যাস? তা হলে আপনাদের দরকার ডিজিটাল ডিটক্স। বেশ কিছুদিন ডিজিটাল জগৎ থেকে সম্পূর্ণ ছুটি নিয়ে নেওয়াকেই বলে ডিজিটাল ডিটক্স। কীভাবে অত্যধিক ডিজিটাল আকর্ষণের হাত ছাড়িয়ে বেরোবেন, তারই কিছু হদিশ রইল এখানে।

সাময়িকভাবে ভুলে যান গ্যাজেট
এমন কোথাও বেড়াতে যান, যেখানে মোবাইল নেটওয়ার্ক বা ওয়াইফাইয়ের সংযোগ নেই। বিভিন্ন রিসর্টে আজকাল বিশেষভাবে এই ব্যবস্থা রাখা হয় যাতে স্বামী স্ত্রী গ্যাজেটের হাত এড়িয়ে পরস্পরের একান্ত সান্নিধ্যে কাটাতে পারেন ছুটির সময়টুকু। যে সময়টা স্মার্টফোনের স্ক্রিনে ডুবে থাকতেন, সেই সময়টা প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করুন।

সোশাল মিডিয়ায় গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ করুন
পরস্পরের সান্নিধ্যে থাকাকালীনই শুধু নয়, নিজেও সোশাল মিডিয়ায় অ্যাকটিভ থাকার সময় নিয়ন্ত্রণ করুন। আগে থেকে ঠিক করে নিন দিনের মধ্যে কতক্ষণ আপনি অনলাইন থাকবেন। নিজের তৈরি করা সময়সীমা মেনে চলুন।

নোটিফিকেশন আর অ্যালার্ট সেটিং বদলে দিন
প্রতি মুহূর্তেই যদি আপনার ফোন টুংটাং করে বাজতে থাকে, তা হলে দেখার আকর্ষণও প্রবল হয়ে ওঠে। এই সমস্যা এড়াতে প্রেমিকের সঙ্গে থাকার সময় ফোনের নোটিফিকেশন ও অ্যালার্ট সেটিং বদলে দিন। সব অ্যাপে সারাক্ষণ অ্যাকটিভ থাকার দরকারটাই বা কী?

মুহূর্তে মুহূর্তে আপডেট নয়
প্রতিটি ব্যক্তিগত মুহূর্ত সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট করবেন না। কিছু বিষয় একান্তভাবে ব্যক্তিগত থাকাই ভালো। আর সঙ্গীর অনুমতি না নিয়ে দু’জনের ছবি পোস্ট করা তো একেবারেই চলবে না।

ফোন সাইলেন্ট করে রাখুন
যে সময়টুকু দু’জনে একসঙ্গে কাটাচ্ছেন, তার মধ্যেও বাইরের পৃথিবী ভাগ বসাক, আপনারা কেউই নিশ্চয়ই সেটা চান না! শনি-রবিবারগুলোয় বন্ধ রাখুন সোশাল মিডিয়ার দরজা। ঘরের কোনায় নেটফ্লিক্স না করে বেছে নিন খোলা মাঠের হাওয়া। সাইলেন্ট থাক ফোন। ফিরে যান আপনাদের সম্পর্কের সেই প্রথম দিনগুলোয় যখন একে অপরের দিকে তাকিয়ে থেকেই কেটে যেত সময়।