দাদির মৃত্যুর পর কুমিল্লার দুই শিশুও করোনায় আক্রান্ত

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৯, ২০২০

কুমিল্লা : কভিড-১৯ করোনাভাাইরাসে দাদির মৃত্যুর পর কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলায় দুই শিশু করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তাদের একজনের বয়স সাত বছর ও অন্যজনের বয়স চার বছর।

বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর ও কুমিল্লার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো.শাহাদাত হোসেন।

সূত্র জানায়, ঢাকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে শিশুদের দাদি ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে মারা যান। শিশুদের বাবা ও চাচা সোমবার কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিজ গ্রামে চলে আসেন। মঙ্গলবার গ্রামের দুইটি বাড়ি লকডাউন করে প্রশাসন।

সূত্রে জানা যায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের ওই গ্রামের সংশ্লিষ্ট পরিবারের সদস্যরা ঢাকার খিলক্ষেত এলাকায় বসবাস করেন। শিশুদের দাদির করোনা উপসর্গ দেখা দেয়ায় গত রবিবার তাকে প্রথমে ঢাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতাল ভর্তি করা হয়। পরে একই দিন রাতে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির পর তার মৃত্যু হয়। মৃতের শরীর থেকে নেয়া নমুনা পরীক্ষায় করোনা ধরা পড়ে।

কুমিল্লা ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা.শাহাদাত হোসেন জানান, পরিবারের সদস্যদের নমুনা আইডিসিআরে পাঠালে দুই শিশুর করোনার রিপোর্ট পজেটিভ আসে। তাদের বাড়িতে রেখে এখন চিকিৎসা দেয়া হবে।

বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইমরুল হাসান জানান, বুড়িচংয়ের ওই পরিবারে ছয়জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তার মধ্যে দুইটি শিশুর করোনার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। জিয়াপুর গ্রামটি লকডাউন করা হয়েছে।