করোনা আক্রান্ত ফুটবল চিকিৎসকের আত্মহত্যা

সোমবার, এপ্রিল ৬, ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক: করোনায় যখন পুরো বিশ্ব বিপর্যস্ত, তখন আত্মহত্যা করে বসলেন ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের দল রেইমসের ৬০ বছর বয়সী চিকিৎসক বার্নার্ড গনজালেজ। তিনি তার স্ত্রীসহ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। কিন্তু তিনি লড়াই না করেই চলে গেলেন। একটি চিরকুট লিখে আত্মহত্যা করেছেন কিংবদন্তিতুল্য এ চিকিৎসক।

এ খবর নিশ্চিত করেছেন রেইমসের মেয়র আর্নড রবিনেট। জানিয়েছেন বার্নার্ডের মৃত্যুতে শুধু রেইমস ক্লাবই, পুরো শহরের মানুষ শোকাহত। কারণ সকলের খুব কাছের ছিলেন বার্নার্ড। তবে সুইসাইড নোটে কী লেখা ছিল সেটি পড়েননি রেইমস মেয়র।

বার্নার্ডের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে রবিনেট বলেন, ‘তিনি আমাদের ক্লাবের চিকিৎসক ছিলেন। দারুণ পেশাদার একজন তিনি। যে কারণে সবাই তাকে ভালবাসে, সম্মান করে। তার পরিবারের জন্য আমার গভীর সমবেদনা। তিনি কোভিড-১৯ আক্রান্ত ছিলেন। আমি জানি তিনি একটা সুইসাইড নোট লিখেছেন। আমি সেটা পড়িনি।

ফ্রেঞ্চ ক্লাব রেইমসের হয়ে প্রায় ২৩ বছর ধরে কাজ করেছেন বার্নার্ড। যখন ক্লাবের দুর্দিন ছিল, তখন বিনামূল্যেই স্বাস্থ্যসেবা দিয়েছেন তিনি। শুধু ক্লাব নয়, শহরের সবার জন্যই খোলা ছিল বার্নার্ডের সাহায্যের দরজার।

তাই তার প্রতি কৃতজ্ঞতার শেষ নেই রেইমসের। ক্লাবের প্রেসিডেন্ট পিয়েরে কাইলট বলেন, ‘আমার কিছু ব্লার ভাষা নেই। আমি এই খবরে বিমূর্ত হয়ে গেছি। রেইমসের হৃদয়ে আঘাত করলো এই মহামারী। তিনি (বার্নার্ড) রেইমসের একজন ব্যক্তিত্ব ছিলেন, ক্লাবের অন্যতম সেরা পেশাদার ছিলেন।’

কাইলট আরও বলেন, ‘ক্লাবের সঙ্গে ২০ বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করেছেন তিনি। নিজের কাজের ক্ষেত্রে পেশাদারিত্বে কখনও ছাড় দেননি। পুরোপুরি নিঃস্বার্থভাবে কাজ করেছেন। ক্লাবের খারাপ সময়ে বিনামূল্যে সেবা দিয়েছেন। নিজের কাজকে একটা শিল্প বানিয়েছিলেন তিনি। তার মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত।’