গুজব ছড়ানোর অপরাধে ৬ জনের ভ্রাম্যমান আদালতে সাজা

বুধবার, এপ্রিল ১, ২০২০

বরিশাল : বরিশালের গৌরনদীতে করোনা সম্পর্কে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে স্থানীয় প্রশাসনের অভিযানে আটক ইমাম ও শিক্ষক সহ ৬ জনের প্রত্যেককে ২৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত। জরিমানার টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হলে তাদের প্রত্যেককে ১ মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

বুধবার (০১ জানুয়ারি) ‍দুপুরে গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইসরাত জাহান পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালত তাদের এ দন্ড প্রদান করেন বলে জানিয়েছেন বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো গৌরনদী পৌর এলাকার বাসিন্দা ও গৌরনদী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম(৩৩), বার্থী কলেজের শিক্ষক সালমা আক্তার(৫৫), বানিয়াছড়ি মসজিদের ইমাম আব্দুল কাদের মোল্লা (২১), উত্তর বিজয়পুর মসজিদের ইমাম হাসান আল-মামুন(৩৩), অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট সিরাজুল ইসলাম (৪৫) ও অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিকা দিপালী দেবনাথ(৫৫)। এদের মধ্যে ২জন ইমাম ও অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্টকে মসদিজের মাইকে করোনা সম্পর্কে গুজব সৃস্টির অভিযোগে এবং অপর ৩জনকে ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আটক করা হয়।

থা্না পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) দিবাগত রাত ১০টার পর আটককৃকতরা মাইকিং করে এবং ফেসবুকে করোনা সম্পর্কে গুজব ছড়িয়ে অস্থিরতা সৃস্টির চেস্টা করে। মাইকে এবং ফেসবুকে তারা উল্লেখ করেন, ‘মঙ্গলবার রাত ১১টা থেকে ৩টা পর্যন্ত কেউ ঘরের বাইরে যাবেন না, করোনা ভাইরাস নির্মূলে হেলিকপ্টারযোগে স্প্রে করা হবে। এই সময়ে ঘরের বাইরে কোন কাপড়-চোপড় থাকলে তাও দ্রুত ঘরে নিয়ে যান’। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনের নজরে এলে ওই রাতেই অভিযানে নামেন তারা এবং ৬জনকে আটক করা হয়।