জ্বর-সর্দি-কাশি থাকায় ‘করোনা সন্দেহে’ আইসোলেশনে চিকিৎসক

মঙ্গলবার, মার্চ ৩১, ২০২০

বরগুনা : জ্বর, সর্দি-কাশি নিয়ে বরগুনার আমতলী উপজেলার একটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক চিকিৎসক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

সোমবার বিকেল ৫টায় ওই চিকিৎসককে হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রেখেছেন। বরগুনা জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আমতলী উপজেলার ওই চিকিৎসক বেশ কয়েকদিন ধরে এলাকার সাধারণ মানুষকে চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। জ্বর, সর্দি-কাশি অনুভূতি হলে তাকে বরগুনা জেলা হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করানো হয়। তার নমুনা সংগ্রহ করে বিকেলেই ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

বরগুনা জেলা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সোহরাব উদ্দীন বলেন, আমতলী উপজেলা কুকুয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক চিকিৎসক বিকেলে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে বরগুনা আইসোলেশন ভর্তি হয়েছেন। তিনি জ্বর সর্দি ও কাশি নিয়ে এখানে ভর্তি আছেন। বিষয়টি আমরা ঢাকায় জানিয়েছি। প্রাথমিকভাবে আমরা আমাদের সাধ্যমতো চিকিৎসা দিচ্ছি। বরগুনা সিভিল সার্জন ডা. হুমায়ূন শাহীন খান বলেন, আতঙ্কের কিছু নাই। বিষয়টি আমরা ঢাকায় জানিয়েছি। প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

এর আগে ১৮ মার্চ বরগুনা সদর উপজেলার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে এক ভারতীয় নাগরিককে হাসপাতালে ভর্তি করা ছিলো এবং ১৭ ফেব্রুয়ারি বরগুনা সদর উপজেলার চীনফেরত এক শিক্ষার্থী জ্বর নিয়ে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

ওই শিক্ষার্থীর নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানোর পর পরীক্ষা শেষে শিক্ষার্থী করোনা ভাইরাস সংক্রমণে সৃষ্ট রোগ কভিড-১৯ এ আক্রান্ত নন বলে নিশ্চিত করে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইসিডিআর)।