জন্মের পরই রেগে আগুন নবজাতক, ছবি ভাইরাল

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০

জন্মের পর সাধারণত নবজাতক কান্না করে। তবে জন্মের পর রেগে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এক নবজাতক। মায়ের পেট থেকে বেরিয়ে ডাক্তারদের দিকে তাকিয়ে রীতিমতো চোখ কপালে নবজাতকের। সেই ছবিই এখন ভাইরাল নেটদুনিয়ায়।

সদ্যোজাতের এমন কর্মকাণ্ডেই আপাতত মজে নেটিজেনরা। এমন ঘটনায় অনেকে মজা পেয়েছেন তারা। ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিওতে। সেখানকার এক হাসপাতালে ১৩ ফেব্রুয়ারি জন্ম নেয় এক কন্যা নবজাতক।

জন্মের পর থেকেই ওই নবজাতক ছিল একবারে চুপচাপ। ওই নবজাতকের গলা দিয়ে কোনো আওয়াজ বের হচ্ছিল না। তাই ডাক্তাররা তাকে সামান্য আঘাত করেন।

কারণ ওই সদ্যোজাতের ফুসফুস সঠিকভাবে কাজ করছিল না। তাই ছোট্ট প্রাণ এই আঘাতে কেঁদে ওঠে। ডাক্তাররাও সদ্যোজাতের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে অবহিত হন।

কিন্তু হয়ে গেল হিতে বিপরীত। কান্না তো দূরের কথা, ডাক্তাররা তাকে চড় মারায় রীতিমতো রেগে গেল সদ্যোজাত। চোখ পাকিয়ে ডাক্তারদের দিকে তাকিয়ে রইল খানিকক্ষণ। সদ্যোজাতের এমন ব্যবহারে অবাক ডাক্তাররাও। তবে প্রথমে ঘাবড়ে গেলেও পরে হেসে ফেলেন তারা।

সেই শিশুকন্যার মা ডায়ান ডি জিসেস বারবোসা তার প্রসবের ঘটনা চিরস্মরণীয় করে রাখতে একটি ফটোগ্রাফার ভাড়া করেছিলেন। নবজাতকের ছবিগুলো তিনিই তোলেন। ফলে শিশুকন্যার ওই রাগী মুখের ছবিও মুহূর্তে ক্যামেরাবন্দি হয়ে যায়। তিনিই ছবিটি পরে সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেন। আর এখন তো সেই ছবি রীতিমতো ভাইরাল।

ওই ফটোগ্রাফারই জানান, নবজাতক যখন এমন রেগে গিয়েছিল, তখনও তার নাড়ি কাটা হয়নি। অবশ্য পরক্ষণেই নাড়ি কেটে ফেলা হয়। পরে কান্নাকাটি জুড়ে দেয় সদ্যোজাত।