ক্যান্সার প্রতিরোধে নয়ন তারা ফুল

বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০

স্বাস্থ্য ডেস্ক : এই ফুলের নামটি বেশ সুন্দর। আর ফুলগুলো দেখতেও কিছুটা অদ্ভুত রঙের হয়ে থাকে। এই ফুলের আকার পয়সার মতো গোলাকার হওয়ায় একে পয়সা ফুলও বলা হয়।

শুধু ফুলই নয়, নয়নতারা ফুলের পাতাও গোলাকৃতির হয়। নয়নতারা ফুল মানেই রঙের বাহার। সাদা, গোলাপি, হালকা নীল ইত্যাদিসহ আরো অনেক রকমের নয়নতারা ফুল দেখা যায় বাংলাদেশে। জানেন কি? নয়ন তারা গাছ ও ফুল পুষ্টিগুণ ও ওষুধিগুণে অনন্য। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক এর বিভিন্ন পুষ্টিগুণ সম্পর্কে-

১. ডায়াবেটিস সারাতে নয়ন তারা

ডায়বেটিস সারাতে নয়ন তারা গাছের ফুল বেশ কার্যকরী। শুকানো বা কাঁচা ফুল এক্সেত্রে ব্যবহার করতে পারেন। শুকনা হলে এক গ্রাম আর কাঁচা হলে দুই গ্রাম রাতে এক কাপ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে পানি ছেঁকে ফুটিয়ে আধা কাপ মতো পান করুন। এই আধা কাপ পানি অর্ধেক করে সকাল ও রাতে পান করুন। তাতে ডায়াবেটিস রোগীরা ভালো ফল পাবেন।

২. বাত বা গাঁটে ব্যথা

যাদের বাতের ব্যথা বা গাঁটে ব্যথা রয়েছে তারা এই নয়ন তারা ফুল, মূল ও পাতা সেবন করলে অল্প কয়েক দিনে বাতের ব্যথা ভালো হয়ে যাবে।

৩. কৃমি রোগে

কৃমি রোগ সারাতেও এই ফুল, মূল ও পাতা বিশেষ কার্যকরী। ৫ থেকে ৬ দিন পানিতে ফুটিয়ে এর ফুল, মূল বা পাতা পান করলেই কৃমি রোগ সেরে যায়। তবে ৮ থেকে ১০ দিন পান করলে সবচেয়ে ভাল ফল পাওয়া যায়। তবে বাচ্চাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়।

৪. মেধা শক্তি বৃদ্ধিতে

যাদের মেধা শক্তি দুর্বল তারা এই নয়ন তারা ফুল, মূল ও পাতা ২ গ্রাম পরিমাণে এক কাপ পানিতে সিদ্ধ করে নিন। পানি ছেঁকে ফুটিয়ে আধা কাপ করে নিন। ফুটানো পানি অর্ধেক করে সকাল ও বিকেল টানা এক মাস পান করলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে।

৫. ক্যান্সার প্রতিরোধে নয়ন তারা

ক্যান্সার প্রতিরোধক হিসেবে যত ভেষজ উদ্ভিদ রয়েছে তার মধ্যে নয়ন তারা গুণাগুণ সবচেয়ে বেশি। নয়ন তারা গাছ দিয়ে বর্তমান বিশ্বে অনেক ওষুধ কোম্পানি ক্যান্সারের ওষুধ তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে।