করোনা আতঙ্কে ফের বিশ্বের শেয়ারবাজারে ধস

বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০

নিউজ ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বাড়তে থাকায় এর প্রভাবে আবারও ধস নেমেছে এশিয়ার শেয়ারবাজারগুলোতে। একই অবস্থা সুদূর যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়াতেও।
আজ বুধবার এসব এলাকার প্রায় সবগুলো শেয়ারবাজারেই লেনদেনের সূচক পড়ে গেছে আশঙ্কাজনক হারে।
চীনের পর করোনাভাইরাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যা এখন দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে এ পর্যন্ত অন্তত ১ হাজার ১৪৬ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ১১ জন। সেখানে ভাইরাস সংক্রমণ দ্রুত বাড়তে থাকায় এর প্রভাব পড়েছে শেয়ারবাজারেও। বুধবার দক্ষিণ কোরিয়ার কসপির সূচক কমে গেছে অন্তত ১ দশমিক ৫ শতাংশ।

একই অবস্থা জাপানেও। বুধবার সেখানকার নিক্কেই ২২৫-এর সূচক পড়ে গেছে ১ দশমিক শতাংশ। দেশটিতে এ পর্যন্ত ১৫৯ জন ভাইরাস আক্রান্ত ও একজন মারা গেছেন।
হংকংয়ের হ্যাং সেং সূচক কমেছে ১ দশমিক ১ শতাংশ। চীনের স্বায়ত্তশাসিত এ অঞ্চলে ৮৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন দু’জন।
ভাইরাসের উৎসস্থল চীনের অর্থনীতিতে প্রায় দু’মাস ধরেই বিপর্যয় চলছে। বুধবারও সেই ধারা অব্যাহত ছিল। এদিন সাংহাই কম্পোজিটের সূচক কমেছে অন্তত এক শতাংশ। দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজার ৭১৫ জন, আক্রান্ত ৭৮ হাজার ৬৪।
তবে ভাইরাস আতঙ্কে সবচেয়ে বড় ধস নেমেছে যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারে। বুধবার কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে অন্তত ৮৭৯ পয়েন্ট হারিয়েছে (৩ দশমিক ২ শতাংশ) ডো (আইএনডিইউ), যা তাদের টানা দ্বিতীয়দিনের মতো বড় দরপতন। গত চারদিনে দুই হাজারেরও বেশি পয়েন্ট হারিয়েছে তারা।
একই দিন এস অ্যান্ড পি ৫০০-এর সূচক তিন শতাংশ ও নাসদাক কম্পোজিটের সূচক ২ দশমিক ৮ শতাংশ পড়ে গেছে।
এছাড়া বড় পতন ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার এস অ্যান্ড পি/এএসএক্স ২০০ সূচকেও। বুধবার এর লেনদেন ২ দশমিক ১ শতাংশ পতনের মুখে পড়েছে। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ৫৩ জন ও অস্ট্রেলিয়ায় ২৩ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছে।