অপ্রতিরোধ্য রোনালদোয় লাভবান জুভেন্টাস

রবিবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক : কঠোর পরিশ্রম, অস্বাভাবিক জয়ের ক্ষুধা, হার না মানা কঠিন মানসিক শক্তি- এ তিনের সমন্বয়ে যে মানুষটি তৈরি তিনি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। যে বয়সে অন্য খেলোয়াড়েরা নিজেদের ক্যারিয়ারের ইতি টেনেছেন, সে সময়ে নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে তরুণদের মতো, না তরুণরাও হয়তো তার মতো এতো ধারাবাহিক নন, বরং বলা যায় তরুণদের হারিয়ে মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন সদ্য ৩৬-এ পা দেয়া রোনালদো। রোনালদো এমন একজন খেলোয়াড়, তিনি যে স্থানে পা রাখেন সেখানকার রাজত্ব কায়েম করে ফেলেন।

এইতো সেদিন শুরু করা রোনালদো দেখতে দেখতে পেশাদার ফুটবল ক্যারিয়ারে এক হাজার ম্যাচ খেলে ফেললেন। ক্লাব ও জাতীয় দল মিলিয়ে পেশাদার ক্যারিয়ারের ১০০০তম ম্যাচ খেলতে গতরাতে মাঠে নেমেছিলেন রোনালদো। নিজের হাজার তম ম্যাচে গোল তো পেয়েছেন, সাথে একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে তিন দেশের লিগে টানা ১১ ম্যাচে গোল করার রেকর্ড গড়েছেন এই পর্তুগীজ যুবরাজ। তার মাইলফলক ছোঁয়ার ম্যাচে স্পালকে হারিয়ে সিরি আতে জয়ে ফিরলো জুভেন্টাস।

রবিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) অ্যালিয়াঞ্জ এরিনায় টেবিলের নিচের দল ফিওরেন্তিনাকে আতিথিয়তা দেয় জুভেন্টাস। আর ম্যাচের শুরু থেকেই প্রতিপক্ষের ওপর চড়ে বসে তুরিনের বুড়িরা। গোলের দেখা পেতে অবশ্য তাদের ৩৯ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে। এ সময় দলকে এগিয়ে দেন রোনালদো। এ নিয়ে লিগে টানা ১১ ম্যাচে গোলের দেখা পান রোনালদো। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় জুভেন্টাস। বিরতি থেকে ফিরে আরও আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে জুভে। কিন্তু সুযোগ মিস করায় গোলের দেখা পায়নি দিবালা-রোনালদোরা। ম্যাচের ৬০ মিনিটে দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় তুড়িনের বুড়িরা। দিবালার থ্রু ইন থেকে বল পেয়ে বলকে জালে পাঠান অ্যারন রামসি। এর ৯ মিনিট পর পেনাল্টি পায় স্পাল। পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান কমালেও হার এড়াতে পারেনি স্পাল। শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জুভেন্টাস।