ডেঞ্জার জোন বলে সরে গেলেন রেখা!

শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক : সম্প্রতি ফটোগ্রাফার ডাব্বু রত্নানির ক্যালেন্ডার লঞ্চের অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন রেখা। পাপারাজ্জির অনুরোধ রাখতে ডাব্বু কন্যা মাইরার হাত ধরে মঞ্চে উঠে হাঁটতে শুরু করেন অভিনেত্রী। হাঁটতে হাঁটতে মঞ্চের এক কোণায় দাঁড়িয়ে ক্যামেরার সামনে পোজ দিতে গিয়েই দেখেন দেওয়ালে টাঙানো অমিতাভের ছবি। আর তা দেখেই রেখা মন্তব্য করে বসেন, “ইয়ে ডেঞ্জার জোন হ্যায়”। বলেই চটপট সেখান থেকে হাঁটা দেন অভিনেত্রী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রেখার এই ভিডিও পোস্ট হতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। তবে এই প্রথম নয়, গতবছরও ডাব্বু রত্নানির ক্যালেন্ডার লঞ্চে হাজির হয়ে অমিতাভের ছবি দেখে একপ্রকার আঁতকে উঠেছিলেন রেখা।

অমিতাভ-রেখার সম্পর্কের ‘সিলসিলা’ প্রায় কারোরই অজানা নয়। তবে এখন একে অপরকে দেখে পাশ কাটিয়েই চলেন। তবে সিনেমার পর্দায় অমিতাভ-রেখার রসায়ন আজও সিনেমাপ্রেমীদের মনে ছাপ রেখে গিয়েছে।

অমিতাভ-রেখার প্রেম নিয়েও বি-টাউনে কিছু কম গুঞ্জন নেই। এমনকি সিমি সিমি গারেওয়াল-এর টক শোয়ে এসে অমিতাভের প্রতি তার ভালোবাসার কথা একপ্রকার স্বীকারই করে নিয়েছিলেন রেখা। বলেছিলেন, “আমি ওনার মত মানুষ আর দেখিনি।”

১৯৮৪ সালে ফিল্মফেয়ার-কে দেয়া সাক্ষাৎকারে অমিতাভের থেকে আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নিয়ে রেখা বলেন, “তার ভাবমূর্তিকে সমাজের কাছে রক্ষা করার জন্য, পরিবার ও তার সন্তানদের রক্ষা করার জন্যই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আমার মনে হয় একটা সুন্দর বিষয়। তবে সকলে কী মনে করছে সেটা নিয়ে আমি মাথা ঘামাই না।”

যদিও রেখার সঙ্গে তার সম্পর্কের বিষয়ে প্রকাশ্যে কোনোদিনই মুখ খোলেননি অমিতাভ বচ্চন। সূত্র: জি-নিউজ