চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নারী ইউপি সদস্যের ধর্ষণ মামলা

শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলা তাহেরহুদা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম মনজেরের (৪৮) বিরুদ্ধে আদালতে এক নারী মেম্বর ধর্ষণ মামলা করেছেন। মামলা নং এনটিসি পিটিশন ৬৯/২০২০। মামলাটি এজাহার হিসেবে গ্রহণ করার জন্য হরিণাকুন্ডু থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন ঝিনাইদহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক চাঁদ মোহাম্মদ আব্দুল আলীম আল রাজি।

আদালত সুত্রে জানা গেছে, গত ১২ ফেব্রয়ারি তাহেরহুদা ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে কাজ করছিলেন। দুপুর গড়িয়ে গেলে ইউপি সদস্যসহ পরিষদের কর্মচারীরা একে একে সবাই কার্যালয় থেকে চলে যান। একা পেয়ে চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম মনজের নিজ অফিসে ওই ইউপি সদস্যকে ডেকে কু প্রস্তাব দেন। চেয়ারম্যানের প্রস্তাবে রাজি না হলে তাকে সেখানেই ধর্ষণ করেন মনজের। এ সময় চেয়ারম্যানের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয় বলে মামলার বিররণে ভুক্তভোগী ওই নারী উল্লেখ করেন।

গত ১৯ ফেব্রয়ারি তিনি আদালতে উপস্থিত হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলায় শরিফুল ইসলাম, ফজের আলী, মিন্টু মোল্লা, আল আমিনসহ ৬ জনকে সাক্ষী হিসেবে রাখা হয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম মনজেরের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

তাহেরহুদা ইউনিয়নের সচিব আসাদুজ্জামান লিটন বলেন, ঘটনার দিন আমি সারাদিনই পরিষদে ছিলাম। আমার জানামতে এমন কোন ঘটনা সেদিন ঘটেনি। তিনি বলেন, চেয়ারম্যানের সঙ্গে ওই নারী সদস্যদের দীর্ঘদিনের বিরোধ। সেই সুত্র ধরে এই মিথ্যা মামলা করা হতে পারে।

এ বিষয়ে হরিণাকুন্ডু থানার ওসি আসাদুজ্জামান বলেন, আমি আদালতের কোন আদেশ শনিবার পর্যন্ত হাতে পাইনি। হাতে পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেব।