জামায়াতের প্রস্তাবে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে পাকিস্তান সংসদে প্রস্তাব পাস

বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফিলিস্তিন ও দখলদার ইসরাইলে কথিত শান্তি প্রতিষ্ঠায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষ থেকে উত্থাপিত একপেশি ও বিতর্কিত শান্তি পরিকল্পনা ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ বা ‘শতাব্দীর সেরা সমঝোতা’ প্রত্যাখ্যান করেছে পাকিস্তান। দেশটির সংসদে ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই পরিকল্পনার বিরুদ্ধে একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে।

দেশটির প্রধান ধর্মভিত্তিক দল জামায়াতে ইসলামির সিনেটর মুশতাক আহমেদ এই প্রস্তাবটি তুলেছিলেন। প্রস্তাবে বলা হয়েছে- কথিত এই শান্তি পরিকল্পনার মাধ্যমে ফিলিস্তিনি জনগণকে অপমানজনকভাবে আত্মসমর্পণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) পিটিভির বরাত দিয়ে তুরস্কের আনাদলু এজেন্সি জানিয়েছে, সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ১০৪ আসনের সিনেটে এই প্রস্তাব সর্বসম্মতিভাবে পাস হয়েছে। মুশতাক আহমেদের তোলা প্রস্তাবটিতে সরকার ও বিরোধীদলের সব সদস্যরাই সমর্থন জানিয়েছেন।

প্রস্তাবনায় জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী স্বীকৃতি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের তথাকথিত ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ বা শতাব্দীর সেরা সমঝোতা বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এ শান্তি পরিকল্পনা নিপীড়িত ফিলিস্তিনিদেরকে তাদের নিপীড়কদের কাছে অবমাননাকর আত্মসমর্পণ হিসেবে দেখছেন সিনেটররা।

ফিলিস্তিন ইস্যুর একটি ন্যায্য ও শান্তিপূর্ণ সমাধানের উপর জোর দিয়ে এতে বলা হয়েছে, ‘জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ এবং নিরাপত্তা পরিষদে পাস হওয়া প্রস্তাবের ভিত্তিতেই ফিলিস্তিন সঙ্কটের সমাধান করতে হবে। এছাড়া অন্য কোনো সমাধান গ্রহণযোগ্য নয়।’

সিনেটে পাস হওয়া প্রস্তাবে ফিলিস্তিনিদের বৈধ এবং ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য একটি সর্বসম্মত কৌশল গ্রহণে ওআইসি’র জরুরি সম্মেলন ডাকার জন্য পাকিস্তান সরকারকে পদক্ষেপ নিতে আহ্বান জানানো হয়েছে।

সার্বভৌম ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের কথা উল্লেখ্য করে প্রস্তাবে আরও বলা হয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা সমস্ত ফিলিস্তিনি নাগরিক নিরাপদে যেন মাতৃভূমিতে ফিরতে পারেন। এছাড়া, ইহুদিবাদী ইসরাইল ফিলিস্তিনের যে সমস্ত ভূমি জবর দখল করে রয়েছে এবং সেখানে যে সমস্ত অবৈধ ইহুদি বসতি নির্মাণ করেছে তা আন্তর্জাতিক আইনের লংঘন এবং ফিলিস্তিনিদের ওপর ইহুদিবাদী ইসরাইলের আগ্রাসন বলে উল্লেখ করা হয়েছে।