বিশ্বাস হয় না- খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে পারবো: ড. মঈন

রবিবার, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০

ঢাকা : দেশের বর্তমান পরিস্থিতি ও বাস্তবতা বিশ্লেষণ করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্তি প্রসঙ্গে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, ‘আজকে বাংলাদেশের বাস্তবতাকে অস্বীকার করে আমার বিশ্বাস হয় না বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে পারবো। এটাই বাস্তবতা, এটাই কঠিন সত্যি।’

একইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বর্তমানে দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি কী- তা পর্যালোচনা করেই আমাদের ঠিক করতে হবে আমরা কিভাবে বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে পারবো।’

রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা মোহাম্মদ আকরাম খাঁ হলে গণতন্ত্র ফোরাম আয়োজিত বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও তাঁর নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বর্তমান সরকারের সমালোচনা করে বিএনপির ‘সরকার দেশের জনগণকে ভয় পায়। শুধু তাই নয়, দেশের সবচেয়ে ক্ষমতাশালী নেত্রী সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকেও ভয় পায় সরকার। কারণ একটাই, বেগম জিয়ার সঙ্গে রয়েছে দেশের ১৭ কোটি জনগণ।’

সরকারের কাছে প্রশ্ন রেখে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছিলাম গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে। আজকে যদি দেশে সেই গণতন্ত্রই অনুপস্থিত থাকে, তাহলে কেন কোটি কোটি মানুষ বুকের রক্ত দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছিল?’

সিটি নির্বাচনে মানুষ সরকারকে প্রত্যাখ্যান করেছে মন্তব্য করে মঈন খান বলেন, ‘আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। আমরা কোনও অগণতান্ত্রিক পরিবর্তন চাই না। শান্তিপূর্ণভাবে সরকার পরিবর্তন করতে চাই। আজকে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হলে গণতান্ত্রিকভাবেই এগোতে হবে। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে মানুষ অস্বাভাবিক আচরণ করে। সরকারও তেমন অস্বাভাবিক আচরণ করছে। এবারের সিটি নির্বাচনে ৮০ শতাংশ মানুষ এই সরকারকে প্রত্যাখ্যান করেছে।’

প্রতিবাদ সভায় নাগরিক ঐক্যের আহব্বায় মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি মানুষের যে ভালোবাসা আছে এবং দল যদি ঠিকভাবে নেতৃত্ব দেয় তাহলে বেগম জিয়া বীরের বেশে জেল থেকে বেরিয়ে আসবেন। তাঁকে অন্যায়ভাবে জেলে রেখেছে বর্তমান সরকার। আমি বিএনপির সঙ্গে আছি। আমি শুধু দেখতে চাই, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপি কী কর্মসূচি দিতে পারে। মূলত বিএনপি নেতাদেরই এ সিদ্ধান্ত নিতে হবে। খালেদা জিয়া মুক্তির জন্য লড়াইটা শুরু করতে হবে। এ লড়াই আগামী দিনের লড়াই, বিজয়ের লড়াই।’

প্রতিবাদ সভায় সংগঠনটির সভাপতি ভিপি ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন সিরাজীর সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য দেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য বিলকিস ইসলাম, রাজিয়া আলিম ও এলডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল উপস্থিত ছিলেন।