রোনালদোর রেকর্ড, অসহায় ইব্রাহিমোভিচ

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক : ইতালির কোপা দেল রে ফুটবলের সেমিফাইনালের প্রথম পর্বে শেষ মুহূর্তের গোলে পরাজয় এড়িয়েছে ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাস। বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে এসি মিলানের সঙ্গে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর গোলে ১-১ গোলে ড্র করে মাঠ ছাড়ে তুরিনের বুড়িরা।

মিলানের গিউসিপ্পে মিয়াজ্জা স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই দুই দলই সমান আধিপত্য দেখায়। তবে প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই। বিরতির পর এগিয়ে যায় স্বাগতিক এসি মিলান। ম্যাচের ৬১ মিনিটে স্যামু ক্যাসতিললেজোর শট জুভেন্টাসের গোলরক্ষক বুফন ফিরিয়ে দেন। কিন্তু ফিরতি বল ভলি শটে জালে পাঠান আন্তে র‌্যাবিচ। তবে ৭১ মিনিটে বিপদে পড়ে স্বাগতিকরা।

এসি মিলানের থিও হার্নান্দেজ দ্বিতীয় হলুদ কার্ডের কারণে লাল পেয়ে মাঠ ছাড়েন। ১০ জনের দলে পরিণত হয় এসি মিলান। পিছিয়ে পড়া জুভেন্টাসের একের পর এক আক্রমণে দিশেহারা হয়ে যায় মিলান ডিফেন্ড।

তবে শেষ দিকে এসে সাফল্যের দেখা পায় জুভেন্টাস। ইনজুরি সময়ে জুভেন্টাসের আক্রমণ ঠেকাতে গিয়ে এসি মিলানের ডিফেন্ডার দেভিদ ক্যালাব্রিয়ার হাতে লাগে। পরে ভিডিও অ্যাসিসট্যান্স রেফারির সহায়তা নিয়ে পেনাল্টির বাঁশি বাজান। স্পট কিক থেকে গোল করে জুভেন্টাসকে ১-১ গোলে সমতায় ফেরান রোনালদো। অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা নিয়ে অ্যালিয়েঞ্জ স্টেডিয়ামে আগামী ৫ মার্চ সেমিফাইনালের দ্বিতীয় পর্বে মুখোমুখি হবে এই দুই দল। আর এই গোলের সুবাদে রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন রোনালদো।

ইতালির ইতিহাসে টানা ১১ ম্যাচে গোল করার রেকর্ড গড়েছেন তিনি। পরবর্তী ম্যাচে গোলের দেখা পেলেই এই রেকর্ডটিও নিজের করে নিবেন ৩৫ বছরের কিশোর রোনালদো। রোনালদো যেখানে যান, সেখানেই রাজত্ব কায়েম করেন, এটিই তাকে সবার থেকে আলাদা করে তুলে।