দুই কিশোরীকে গণধর্ষণের ঘটনায় কৃষকলীগ নেতা গ্রেফতার

বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২০

ঢাকা : রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় দুই কিশোরীকে গণধর্ষণের ঘটনায় স্থানীয় ওয়ার্ড কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইমনকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে রামপুরার ডিআইটি প্রজেক্ট এলাকায় ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। তাদেরকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করান বাড্ডা থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো. ইয়াসিন গাজী।তিনি বলেন, ধর্ষণের শিকার কিশোরীরা পরস্পর বান্ধবী। তাদের একজন ডিআইটি প্রজেক্টে মামার বাসায় থাকতো। তার কাছে বেড়াতে এসেছিল অন্যজন।
ঘটনার দিন রাতে তারা দুইজন এক বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে বাইরে যায়। ফিরতে দেরি হওয়ায় তার (বন্ধু) বাসায় যেতে চান তারা। কিন্তু অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া সেই বন্ধু তাদেরকে বাসায় নিতে অপরাগতা প্রকাশ করে। ততক্ষণে রাত একটা। গভীর রাতে দুই কিশোরীর বিক্ষিপ্ত ঘোরাফেরা করতে দেখে ওই এলাকার নাইট গার্ড তাদের কারণ জিজ্ঞাসা করেন। তারা বিষয়টি নাইটগার্ডকে খুলে বলে।
এসআই ইয়াসিন গাজী আরও জানান, বিষয়টি নজরে আসে ঘটনাস্থলে থাকা তিন বখাটের। তারা সহযোগিতার কথা বলে ওই কিশোরীদেরকে একটি বাসায় নিয়ে গিয়ে জিম্মি করে ধর্ষণ করে।
স্থানীয় সূত্রে খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারের পর তাদের ভর্তি করা হয় ঢামেক হাসপাতালের ওসিসিতে। আটক করা হয় ওই কিশোরীদের কথিত বন্ধুকেও। পরে ভুক্তভোগী কিশোরীদের একজনের মা বাদী হয়ে বাড্ডা থানায় একটি মামলা করেন।
তিনি বলেন, ভুক্তভোগী কিশোরী ও তাদের কথিত বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদের পর পুলিশ সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেফতার করেছে স্থানীয় কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইমনকে।
ঘটনায় অভিযুক্ত অন্যান্যদেরকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।
একাধিকবার চেষ্টা করেও এই বিষয়ে বাড্ডা থানা কৃষকলীগের দায়িত্বশীল কারও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।