রক্তাক্ত স্কুলছাত্রী বাবাকে জানায়, তাকে ‘ধর্ষণ’ করা হয়েছে!

সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ): প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সিরাজগঞ্জের তাড়াশে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী তানজীলের (২০) বিরুদ্ধে। ওই স্কুলছাত্রীকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের গাইনী ও প্রসূতি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর বাবা জানান, তাদের প্রতিবেশী রফিকুল ইসলামের ছেলে তানজীল তার মেয়েকে স্কুলে যাতায়াতের পথে বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে তানজীল তার মেয়েকে নিজ বাড়িতে ডেকে এনে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এ সময় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বখাটে তানজীল তার মেয়েকে ধর্ষণ করে। এরপর রক্তাক্ত অবস্থায় তার মেয়ে দৌড়ে বাড়িতে চলে এসে ঘটনাটি তাদের জানায়।

ওই ছাত্রীর বাবা আরও জানান, তিনিসহ পরিবারের লোকজন ভুক্তভোগীকে প্রথমে তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. রঞ্জন কুমার দত্ত বলেন, ‘বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ১৪ বছর বয়সী ওই কিশোরী ভর্তি হয়। তার নিম্নাঙ্গের ক্ষতে সেলাই দেওয়া হয়েছে।’

তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান জানান, বিষয়টি সাংবাদিকদের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। তবে পরিবারের কেউ এখনো অভিযোগ নিয়ে থানায় আসেনি।